ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ফেসবুকের সকল গুরুত্বপূর্ণ সেটিং- যা আপনাকে জানতেই হবে

ADs by Techtunes ADs

ফেসবুকের প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ সব টিপস ও প্রয়োজনীয় সিকুরিটি যা অনেকের অজানা।

✬✬✬ফেইসবুক আইডি হ্যাক থেকে রক্ষা পেত চাইলে এই টিউন মনযোগ দিয়ে দেখুন।  এই টিপস ও কৌশল গুলো আপনার ফেইসবুক লাইফে অবশ্যই কাজে লাগবে. সম্পূর্ণ টিউন দেখলেই তা বুঝতে পারবেন! পোষ্টটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ এবং বড় তাই প্রথমে একটি ভিডিও দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

ভিডিওটি দেখার পর-

ক)১. Account Settings এ যান
২. সেখানে সবার বামের কলামে উপরথেকে দ্বিতীয় স্থানে দেখবেন"Security" অপশন রয়েছে। সেখানে ক্লিক করুন।
৩. সেখানে দেখবেন"Login Approvals"নামের একটি ফিচার আছে। এই ফিচারটি enable করুন।
৪. আপনার মোবাইল নাম্বারদিয়ে ফিচারটি এনাবল করুন।
=> এখন থেকে আপনারফেইসবুক একাউন্টে লগইনকরতে হলে ইমেইল/পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইনকরলে আপনার মোবাইলেমেসেজ আসবে। মেসেজে একটি কোড থাকবে, সেটা দিয়ে লগইন করতে হবে। তবে আপনি চাইলে আপনাAccaunt নিজস্বডিভাইসগুলো কোড দিয়েলগইন করার পর"Save this device"অপশনে ক্লিক করেRecognized deviceহিসেবে রাখতে পারবেন পরবর্তীতেএসব ডিভাইস থেকে লগইনকরতে মোবাইলের কোড ব্যবহারকরা লাগবে না।
(খ)১. Login Approvalsফিচারের এক ধাপ নিচে"Trusted Contacts"নামে আরেকটি ফিচার আছে।
২. আপনার বিশ্বস্ত ফেসবুক ফেন্ধুদের এ ফিচারের আওতায় এনে"Trusted Contacts"হিসেবে চিহ্নিত করতে পারেন।
=> পরবর্তীতে আপনার ফেইসবুকএকাউন্টের কোন সমস্যা হলে এইসবএকাউন্টের রেফারেন্স সহায়কভূমিকা পালন করবে।

বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

কোন ডিভাইস থেকে লগআউট করতে ভুলে গেলেঃ

হাজারো ব্যস্ততার মধ্যে ফেসবুকের সাথে সংযুক্ত থাকেন ব্যবহারকারীরা। কম্পিউটার, মোবাইল, আইপেডসহ বহু ডিভাইস দিয়ে স্ট্যাটাস আপডেট, ম্যাসেজিং, নোটিফিকেশন চেক করতে সার্বক্ষণিক লগইন থাকেন অনেকে। ব্যক্তিগত নয়, এমন ডিভাইস যেমন, অফিসে, বন্ধুর ল্যাপটপে বা কোথাও বেড়াতে গেলে হোটেলের ডেক্সটপ পিসিতে ফেইসবুক ব্যবহারের পর ভুলে লগআউট করা হয় না। তখনই পড়তে হয় নানা ধরনের বিপাকে। এতে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য যেমন বেহাত হতে পারে, তেমনি কেউ একাউন্ট চালু থাকার সুযোগ নিয়ে বেআইনী কর্মকাণ্ড চালাতে পারে।

এ অবস্থায় খুব সহজেই দূরে বসে একাউন্টটি লগআউট করা সম্ভব। সহজ উপায় হলো, ফেসবুকে লগইন করে সেটিং অপশনে গিয়ে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার সময়, ‘Log me out of other devices’ এ ক্লিক করে submit করলেই সমস্যা সমাধান।

https://www.facebook.com/settings

ADs by Techtunes ADs

মোবাইল থেকে
https://m.facebook.com/settings/security/?recognized_devices

এবং আপনি যদি ফেসবুকের পাসওয়ার্ড অপরিবর্তিত রেখে অন্য ডিভাইস থেকে লগআউট করতে চান তাহলে প্রথমে ফেইসবুকে লগইন করে, একাউন্ট সেটিংসে গিয়ে ‘Security’ তে যেতে হবে।
security_settings_fb
তারপর ‘Where You’re Logged In’ এ ক্লিক করতে হবে।
এখানে যেখানে যেখানে কম্পিউটারে লগইন করা হয়েছে তা দেখাবে এবং কম্পিউটারের সময়, ডিভাইসের নাম, কোন শহর, কোন ব্রাউজার, কোন অপারেটিং সিস্টেম তা দেখাবে।
যেখান থেকে এবং যে ডিভাইস থেকে ফেইসবুক একাউন্টটি লগআউট করতে চান সেটিতে ‘End activity’তে ক্লিক করতে হবে। তাহলে ফেইসবুক একাউন্টটি অন্যান্য ডিভাইস থেকে লগআউট হয়ে যাবে।

বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

ফেসবুকের জন্য ইউজার আইডিঃ
-
যেমন আমার আইডি
http://www.facebook.com/tanbir.cox
https://m.facebook.com/tanbir.cox

ফেসবুকের নিজের প্রোফাইল আইডিটি সহজে পাওয়ার জন্য বা অন্যের কাছে নিজেকে সহজে পরিচিত করার জন্য ফেসবুকে ইউজার নেম নিতে পারেন, যার ইউআরএল হবে http://www.facebook.com/username
এই কাজটি করার জন্য Accounts>Account Settings-এ ক্লিক করুন।
https://www.facebook.com/settings
To change your name:
1. Scroll to the bottom of Facebook and click Settings & Privacy
2. Click General > Name
3. Enter your name and click Review Change
4. Enter your password and click Save Changes
Note: To help make sure everyone uses their authentic name, you can only change your name every 60 days.

এখানে দেখুন Name-এর নিচে Username নামে একটি অপশন রয়েছে এবং এর ডান পাশে Change নামে একটি লিঙ্ক রয়েছে, এখানে ক্লিক করুন। এতে আপনার কাছে একটি ইউজারনেম চাওয়া হবে। আপনার পছন্দের ইউজার নেমটি দিয়ে Check Availability বাটনে ক্লিক করুন। নাম যদি ফ্রি থাকে তাহলে Confirm বাটনে ক্লিক করে নামটি সেভ করে নিন।
মনে রাখবেন ইউজারনেমটি অবশ্যই ইউনিক হতে হবে। আগে কেউ এই নামটি নিয়ে থাকলে তা নিতে পারবেন না, সেক্ষেত্রে নামটি পরিবর্তন করে দিতে হবে।

যেভাবে ফেসবুক প্রোফাইল ফটো ক্লিক অযোগ্য করবেনঃ
-
১. প্রথমে ফেসবুকে লগিন করে আপনার Photo Album -এ যান।
২. আপনার photo album থেকে Profile Photo Album এ প্রবেশ করুন।
৩. এবার আপনার Profile photo গুলোর মাঝে যে ফটোটি ক্লিক অযোগ্য করবেন সেটি ক্লিক করে এর Privacy অপশনটি
Only Me সিলেক্ট করে দিন। এছাড়াও আপনি চাইলে আপনার মত করে এটির privacy ঠিক করে নিতে পারবেন Custom অপশন থেকে।
আশা করি নতুনদের জন্য ট্রিকসটি কাজে লাগবে। যারা জানেন তাদেরকে আমার পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট প্রাইভেসি :
-
https://www.facebook.com/settings?tab=privacy
মোবাইল থেকে
https://m.facebook.com/privacy/touch/basic/
ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রাইভেসি অপশন রয়েছে। ফেসবুক ব্যবহারকারী তার প্রয়োজনে এসব প্রাইভেসি যুক্ত করতে পারেন বা কাস্টম প্রাইভেসি যুক্ত করতে পারেন। ফেসবুকের অ্যাকাউন্টে প্রাইভেসি সেট করার জন্য ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করুন। এখানে উপরের ডান পাশে অবস্থিত Account>Privacy Settings-এ ক্লিক করুন। এখানে Sharing on Facebook>Recommended-এ দেখুন Customize Settings নামে একটি অপশন রয়েছে, এখানে ক্লিক করুন। কাস্টোমাইজ সেটিংস থেকে বিভিন্ন অপশনের জন্য প্রাইভেসি সেট করে দিতে পারেন।

বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

ADs by Techtunes ADs

ইমেইলে বিরক্তিকর ফেসবুক নোটিফিকেশন বন্ধের ট্রিকসঃ
-
https://www.facebook.com/settings?tab=notifications
মোবাইল থেকে
https://m.facebook.com/settings/notifications/
ই-মেইলে ফেসবুকের অপ্রয়োজনীয় নোটিফিকেশন বন্ধ করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন :
০১. প্রথমে আপনার ফেসবুকের অ্যাকাউন্টের আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন।
০২. Account-এ ক্লিক করে Account Settings-এ ক্লিক করুন।
০৩. বাম পাশের প্যানেলে দেখুন বেশ কিছু অপশন রয়েছে। এখানে Notifications ট্যাবে ক্লিক করুন। পেজ স্ক্রল করলে All Notification নামে একটি এরিয়া পাবেন।
০৪. অল নোটিফিকেশন থেকে Facebook-এর ডানপাশের Edit বাটনে ক্লিক করুন। এখানে বিভিন্ন ধরনের নোটিফিকেশনের নাম রয়েছে এবং তাদের ডান পাশে টিক চিহ্ন দেয়া আছে। নোটিফিকেশনের ধরন যেমন : Sends you a message, Adds you as a friend, Confirms a friend request, Confirms a friend request, Posts on your wall, Pokes you ইত্যাদি। এরূপ আরো বেশ কিছু নোটিফিকেশন অপশন রয়েছে এবং তাদের ডান পাশে টিক চিহ্ন দেয়া রয়েছে। ফলে এসব নোটিফিকেশন মেসেজ আপনার ই-মেইল অ্যাড্রেসে চলে যাবে। আপনি যেসব নোটিফিকেশন পছন্দ করেন না, তার ডান পাশ থেকে টিক চিহ্ন তুলে দিন। এভাবে আপনি ইচ্ছে করলে সব নোটিফিকেশনের টিক চিহ্ন তুলে দিতে পারেন। বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।
০৫. এবার Save Changes-এ ক্লিক করুন।

পছন্দসই লিস্ট তৈরি করুনঃ
-
https://www.facebook.com/bookmarks/lists
https://www.facebook.com/bookmarks/interests

আপনি কি ফেসবুকের Lists ফাংশনটি ব্যবহার করেছেন? এর মাধ্যমে আপনি যে বিষয়ে উৎসাহী সেই বিষয়ের লিস্ট আপনার প্রোফাইলের হোম পেজে রাখতে পারবেন যাতে সব সময় আপনার বিষয়গুলো এক ক্লিকেই খুঁজে পান।
• এজন্য আপনাকে যেতে হবে আপনার হোম পেজের বাম পাশে interests মেনু থেকে More-এ।
• এবার create list-এ ক্লিক করে পছন্দসই বিষয়গুলো সার্চ করে সিলেক্ট করুন।
• লিস্ট তৈরি হয়ে গেলে সেগুলো প্রাইভেট করে রাখতে পারেন অথবা সবার সাথে শেয়ারও করতে পারবেন।

ফেসবুকে ফ্রেন্ডলিস্ট লুকানোঃ
-
ফেসবুকে ইচ্ছে করলেই অনেক কিছু করা যায়। যেমন- আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট লুকাতে এবং তা আবার দেখাতেও পারবেন। সাধারণত ফ্রেন্ডলিস্ট দেখানো থাকে। ইচ্ছে করলে আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট সহজেই লুকাতে পারবেন। এর জন্য Accounts>Privacy Settings-এ ক্লিক করুন। এখানে দেখুন Choose your privacy Settings-এর নিচে Connecting on Facebook নামে একটি অপশন রয়েছে। এখানে View Settings এর লিঙ্কে ক্লিক করুন। এখানে বেশ কিছু অপশন রয়েছে। এর মধ্যে See your friend list-এর ডান পাশে থাকা বাটনে ক্লিক করুন। এখানে Custom সিলেক্ট করুন। কাস্টম অংশ থেকে Only Me সিলেক্ট করে দিন। এর ফলে আপনি ছাড়া আপনার ফ্রেন্ড বা অন্য কেউ আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট দেখতে পাবে না।

সার্চলিস্টে নিজেকে লুকানোঃ
-
অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছেন যারা নিজেদেরকে শুধু ফ্রেন্ড ও পরিচিত জনের সাথে যুক্ত করতে চান। সেই সাথে চান অন্য কেউ যেনো তাদের খুঁজে না পায় সে ব্যবস্থা রাখতে। এই ধরনের প্রাইভেসি সেট করার জন্য Accounts>Privacy Settings-এ ক্লিক করুন। এখানে Choose your privacy Settings-এর নিচে Connecting on Facebook নামে একটি অপশন রয়েছে। এখানে View Settings-এর লিঙ্কে ক্লিক করুন। এখানে দেখুন Search for you on Facebook নামে একটি অপশন রয়েছে। এখানে ডান পাশের অপশন থেকে Friends Onlyতে ক্লিক করুন। অনেক ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের ঝামেলার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ফেসবুক ব্যবহারকারী এই অপশনটি ব্যবহার করে থাকেন।

কাস্টম সেটিংস সম্পর্কে ধারণাঃ
-
প্রাইভেসি সেটিংস থেকে কাস্টম সেটিংসে ক্লিক করলে একটি উইন্ডো প্রদর্শিত হবে। এখানে Make this visible to-এর These People অংশ থেকে চারটি অপশনের যেকোনো একটি অপশন সিলেক্ট করে দিতে হবে : Friends of Friends, Friends Only, Specific People, Only Me।
স্পেসিফিক কোনো ইউজারের জন্য কাস্টম সেটিংসটির প্রয়োজন হয়ে থাকলে কাস্টম প্রাইভেসি উইন্ডোর Hide this from-এর These people-এর ঘরে উল্লিখিত ব্যক্তি বা ইউজারের নাম সেট করে দিতে পারেন। এতে সবার জন্য সব উন্মুক্ত থাকলেও উক্ত ব্যক্তির জন্য তা হিডেন থাকবে।
এখানে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্য প্রয়োজনীয় বেশ কিছু বিষয় তুলে ধরা হলো। পরে ফেসবুকের ওপর আরো বেশ কিছু বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

নিরাপদ থাকুন অন্যের বিব্রতকর ছবিতে ট্যাগ হওয়া থেকেঃ
-
ফেসবুকের কোনো ছবিতে ট্যাগ করা বা হওয়ার অর্থ কাউকে বা নিজেকে সংশি¬ষ্ট ছবিতে যুক্ত করা। সাধারণত গ্রুপ ছবি বা কারো সম্পৃক্ততা আছে এমন ছবিতে কাউকে বা নিজেকে জুড়ে দিতেই ফেসবুক এই অপশনটি চালু করেছে। কিন্তু আজকাল বিব্রতকর ও অসামঞ্জস্য বিভিন্ন ছবিতে বন্ধুদের যুক্ত করে নিজের কুৎসিত মনের পরিচয় দেন কেউ কেউ। এর থেকে রেহাই পেতে হলে-
• ফেসবুকে লগইন করে Privacy Settings-এ যান। Timeline and Tagging-এর অধীনে থাকা Edit Settings-এ ক্লিক করে নতুন পপ-আপ উইন্ডোর Review posts friends tag you in before they appear on your timeline-এর Off অপশনটিতে ক্লিক করুন।
ঙ নতুন পপ-আপ উইন্ডোর ঞরসবষরহব জবারব–এর উরংধনষব-কে ঊহধনষব করে দিয়ে ইধপশ করে উড়হব এ ক্লিক আপনি বিব্রতকর ছবিতে ট্যাগ হওয়া থেকে মুক্ত হয়ে গেলেন। বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

স্ট্যাটাস শেয়ার করুন নির্দিষ্ট কোনো গ্রুপের সাথেঃ
-
ফেসবুকের প্রাইভেসি সেটিংয়ে ডিফল্ট প্রাইভেসি যাদের সাথে দেয়া থাকে শুধু তাদের ওয়ালেই পৌঁছে যায় ইউজারের ফেসবুক স্ট্যাটাস। তবে চাইলে শুধু নির্দিষ্ট কিছু বন্ধু বা গ্রুপের সাথে শেয়ার করা সম্ভব এটি। নির্দিষ্ট কিছু বন্ধু বা গ্রুপের কাছ থেকে হাইড করে রাখাও সম্ভব এই ফেসবুক স্ট্যাটাস। এটি করার জন্য-
• প্রোফাইলের What’s on your mind-এর ঠিক নিচে থাকা প্রাইভেসি আইকনে ক্লিক করে Custom-এ ক্লিক করুন।
• নতুন পপ-আপ উইন্ডোর Make this visible to-এর These people or lists-এর অপশনটি কিংবা Hide this from-এর These people or lists-এর অপশনটি প্রয়োজনমতো সেট করুন।
• Make this visible-এর These people or lists-এর অপশনটি Specific people or lists করে দিয়ে নিচে যাকে যাকে ট্যাগ করে দেয়া হবে শুধু তাদের ওয়ালেই পৌঁছে যাবে উক্ত স্ট্যাটাসটি।
• একইভাবে Hide these from-এর These people or lists-এ যাদের যাদের ট্যাগ করে দেয়া হবে শুধু তাদের ছাড়া সবার ওয়ালেই পৌঁছে যাবে ওই স্ট্যাটাসটি।

টাইমলাইনে ছবির পজিশন আবার ঠিক করুনঃ
-
আপনি চাচ্ছেন আপনার প্রোফাইল সবসময় সুন্দর দেখাক। আর সে জন্য টাইমলাইনে ছবিগুলো যদি ঠিকভাবে ফোকাস না করে তাহলে তাকে ফোকাসে আনতে হবে। এজন্য আপনি ছবির রি-পজিশন করতে পারেন। খুবই সহজ, টাইমলাইনে ছবির উপরে ডান পাশে পেন্সিল আইকনে ক্লিক করলে reposition অপশন পাবেন। এবার ড্র্যাগ করে ছবির পজিশন আপনার মনের মতো করে নিন। সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

ট্যাগ অনুমোদনঃ
-
আপনার অনেক বন্ধুই আপনাকে অনেক কিছুতে ট্যাগ করে, কিন্তু সব ট্যাগই কি গ্রহণ করতে চান? যদি এরকমই হয় তাহলে ফেসবুকে আছে ট্যাগ অনুমোদন করার উপায়। কেউ আপনাকে কিছুতে ট্যাগ করলে সেটা আপনার টাইমলাইনে আসার আগে আপনার অনুমোদন চাইবে। আপনি চাইলেই সেটা শুধু আপনার টাইমলাইনে প্রকাশ পাবে। এজন্য আপনাকে যা করতে হবে-
• Privacy settings এ ক্লিক করুন।
• Timeline and Tagging ও edit settings এ ক্লিক করুন।
• এবার এই দুটি লাইন খুঁজে বের করুন ০১. ‘‘Review posts friends tag you in before they appear on your Timeline’’। ০২. ‘‘Review tags friends add to your own posts on Facebook’’।
• দুটিতেই ড়হ করে দিন। এখন থেকে আপনার প্রোফাইলে কেউ কিছু ট্যাগ করলে সেটা আপনার অনুমোদনের দরকার হবে।

ADs by Techtunes ADs

আপনার নিউজ ফিড থেকে বিরক্তিকর জিনিসগুলো বাদ দিনঃ
-
আপনার হোম পেজে বন্ধুদের কাছ থেকে বিভিন্ন টিউন আসতে পারে যার অনেক কিছুই আপনার বিরক্ত লাগতে পারে। এই বিরক্তিকর পোস্টগুলোকে আপনার নিউজ ফিড থেকে লুকিয়ে রাখতে পারেন। এজন্য আপনার হোম পেজের বাম সাইডে News Feed-এ মাউস রেখে পেন্সিল আইকন ক্লিক করে edit settings-এ ক্লিক করলে। একটা উইন্ডো আসবে। এখানে আপনি বিরক্তিকর apps, টিউন লুকিয়ে রাখতে পারবেন।
=
ফেইসবুক আইডি হ্যাকথেকে রক্ষা পেতেঃ  বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।
=

হ্যাকিং থেকে রক্ষা পেতে জানতে হবে, কিভাবে আসলে হ্যাক করা হয় একটি ফেইসবুক আইডি।

ফেইসবুক আইডি হ্যাক করার কিছু প্রসেস আছে, ফেইসবুক আইডি সাধারনত হ্যাক করা হয় এই উল্লেখ্যোগ্য প্রসেসের মাধ্যমে তা হলোঃ

* * Reverting (রিভারটিং)
* * Phissing (ফিশিং)
* * Mutual Friends Hacking (মিউচুআল ফ্রেন্ডস হ্যাকিং প্রসেস)
* * Bruteforcing (ব্রুটফোরসিং)
* * Keylogging (কি লগিং)

* Reverting (রিভার্টিং): এই প্রসেস হচ্ছে সেই প্রসেস যা ভিক্টিমের গুরুত্বপুর্ণ কিছু ইনফরমেশনের মাধ্যমে আইডিটা হ্যাক করা হয়…

* Phissing (ফিশিং): এবার আসা যাক ফিশিঙ্গে… এই প্রসেসটা হচ্ছে ধোকা দেয়ার একটা প্রসেস, আপনাকে ধোকা দেয়ার মাধ্যমেই আপনার আইডিটা হ্যাকার হ্যাক করতে সক্ষম হবে… মাঝে মাঝে নিশ্চই দেখেন আমাদের ইন্বক্সে বা অনেক খান থেকে অনেক ইমেইজ বা স্প্যামিং লিন্ক পাই, যাতে আমাদের ইমেইল আইডি, আর পাস এবং আরো অনেক রকমের ফর্ম ফিল্ আপ করতে বলে, এসব লিঙ্কে ভুলেও প্রবেশ করবেন না, আর প্রবেশ করলেও কিছুই লিখবেন না, কারন কিছু লিখলেই সেই লেখাগুলো হ্যাকার কাছে চলে যায়…

* Keylogger (কি লগার) : এই প্রসেস শুদুমাত্র শেয়ার্ড কম্পিউটার, আর আপনার আইপি এড্রেস জানলেই পসিবল নয়তো নয়…

* Mutual Friends Hacking Process (মিউচুআল ফ্রেন্ডস হ্যাকিং প্রসেস): এই প্রসেসটা হচ্ছে সবচেয়ে সহজ এবং সিম্প্লেস্ট প্রসেস যে কোনো ফেইসবুক আইডি হ্যাক করার জন্য… শুদুমাত্র হ্যাকারের ৩ টা আইডি আপনার সাথে লিন্ক থাকলেই কেল্লা ফতে…
=
ফেইসবুক হ্যাকিং থেকে নিজকে রক্ষা করার উপায়ঃ বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।
=
১) আপনার HTTPS লগ ইনটা এনেইবল করে নিন, কারন এই সিস্টেমটা আপনার ফেইসবুক এক্টিভিটি এন্ক্রিপ্টেদ (ENCRYPTED) করে রাখবে, যাতে করে আপনার অনুমতি ছাড়া আপনার আইডিতে লগ ইন করা কারো পক্ষে কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে…

২) ইমেইল আইডিটা হাইড করে রাখুন, যাতে আপনি ছাড়া কেউ তা আর দেখতে না পারে…

৩) আপনার প্রোফাইল বার্থ ডে ইয়ারটা হিডেন করে রাখুন, প্রাইভেসি ওনলি মি করে দিন…

ADs by Techtunes ADs

৪) প্রাইমারি ইমেইল বাদে ২ থেকে ৩ টা ইমেইল আইডি আপনার আইডির সাথে লিন্ক করে রাখুন, লিন্ক করা হয়ে গেলে এই ইমেইল আইডিগুলোর প্রাইভেসিও ওনলি মি করে দিন…

৫) আপনার এক্যাউন্টে একটা সিকুরিটি প্রশ্ন এড করে রাখুন, অবশ্যই মনে রাখবেন সিকুরিটি প্রশ্নের উত্তর্ যাতে কমন কোনো উত্তরের মধ্যে না পরে…

৬) আপনার এক্সেসে থাকা মোবাইল নম্বর দিয়ে এক্যাউন্ট ভেরিফাইড করে নিন…

৭) আপনার এক্যাউন্টের লগ ইন নোটিফিকেইশন এনেইবল করুন…

লগ ইন এপ্রোভালস বা লগ ইন কোড এই অপশনটি এনেইবল করে নিন, তাহলে হ্যাকার না হ্যাকারের বাপ-ও এক্যাউন্ট হ্যাক করলেও এক্যাউন্টের এক্সেস নিতে পারবে না…

৯) ভুলেও কোনো আন্ট্রাস্টেড (UNTRUSTED) স্প্যামিং লিন্ক ক্লিক করে ফর্ম ফিল আপ করতে যাইয়েন না…

১০) আন্ট্রাস্টেড (UNTRUSTED) অপরচিত ফ্রেন্ডস এড করিয়েন না, কারন এই আইডিগুলো হ্যাকারের ফেইক আইডি হতে পারে, যা আপনার সাথে এড করার চেষ্টা করা হবে আপনার আইডি হ্যাক করার উদ্দেশ্য নিয়েই…

এই সব Precaution ফলো করলে মনে হয় না নিপুর মত মুজিব সেনা থেকে জন সমুক্ষে *দা খাওয়া ছাগু আর তার হাগুর দলা ওবিডিয়েন্ট পাগলা গ্রুপের মেম্বাররা আমাদের আইডি হ্যাক করতে পারবে…

হ্যাকিং এর কথা তো শেষ হলো এবার আসা যাক রিপোর্টিং প্রশন্ঙ্গে

রিপোর্টিং সম্পর্কে কি আর বলব, রিপোর্টিং থেকে মুক্তি পাওয়ার তেমন একটা উপায় নেই, শুদু মাত্র একটা কাজ করতে পারেন,

ADs by Techtunes ADs

সব ফটো, টিউন প্রাইভেসি পাবলিক থেকে ফ্রেন্ডস করে দিতে পারেন, তাতে শুধু মাত্র টিউন রিমুভ হওয়া থেকে বাচতে পারেন…

ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত

বুঝতে সমস্যা হলে এখনি দেখে নিন- সহজ ভিডিও।

▬▬▬▬۩۞۩▬▬▬▬
যারা এই পোস্টটি মনদিয়ে পরলেন তাদের অনেক ধন্যবাদ।

আমি নিয়মিত নানান টিপস ও কৌশল আপনাদের জানানোর জন্য একটি Online Help Center নামে ইউটিউবে চ্যানেল তৈরী করেছি আপনার সেটা দেখে আশাকরি উপকৃত হবেন আমার ভুল হলে মাফ করবেন. আমি সবুজ আহম্মেদ সুমন.আল্লাহ হাফেজ।

আরো দেখুন-
বাংলা ফন্ট সমস্যার সমাধান-
ফেইসবুক একাউন্ট খুলুন-
ফেইসবুক বাঁচান-
জিমেইল একাউন্ট খুলুন-

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি সুমন হোসেন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 40 টি টিউন ও 5 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস