ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

FL Studio টিউটোরিয়াল [পর্ব-১৫] :: Advanced Mixing and Mastering : মিউজিক আর ভোকাল আলাদা শোনাবে না

FL Studio টিউটোরিয়াল

কতদিন পর লিখতে বসলাম। টিটি জানাচ্ছে যে ৪ মাস ৪ সপ্তাহ পর। আশা করি সবাই ভাল আছেন। ফেইসবুকে সবার অনুরোধে আবারও লিখতে আসলাম। ইচ্ছা ছিল খুব ভালভাবে বিস্তারিত লেখার। কিন্তু মডেমটা নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তা আর সেভাবে হচ্ছেনা। তাই অনেকসময় ফটোগুলো গ্রুপ থেকে দেখে আসতে হতে পারে। এজন্য আমি খুবই দুঃখিত। যাই হোক সরাসরি টিউনে চলে যাই।
একটা বড় সংখ্যক পাঠক বলেছেন যে তাদের কম্পোজ করা গানের মিউজিক আর ভোকাল নাকি আলাদা শোনায়। বোঝা যায় যে দুইটা আলাদাভাবে সেট করা হয়েছে। এটা মূলত হয় মিক্সিং ও মাস্টারিং (Mixing and Mastering) ঠিকভাবে সম্পন্ন না করা হলে। যাই হোক কিভাবে এটা সম্পন্ন করবেন তা বলছি।
প্রথমত, লক্ষ করুন। Mixer-Master উইন্ডোটি আমি কয়েকটি অংশে বিভক্ত করেছি বোঝার সুবিধার্থে।

ADs by Techtunes ADs
  • 1. FX Slot অংশ
  • 2. Insert অংশ
  • 3. Send অংশ
  • 4. Master অংশ

সহজভাবে চিন্তা করা যাক। ধরুন পুরো বিষয়টা আলুভর্তা ও ডিমভাজি দিয়ে ভাত খাবার মতো। কীভাবে? লক্ষ করুন।

  • 1. FX Slot অংশ – মসলা (যেমন: মরিচ, তেল, লবণ ইত্যাদি)
  • 2. Insert অংশ - আলুসিদ্ধ
  • 3. Send অংশ - ডিম
  • 4. Master অংশ – আপনার খাওয়া।
    তো আপনি প্রথমে কী করবেন। আগে আলুসিদ্ধ আর ডিম রেডি করবেন। অর্থাৎ যে ভোকাল আর মিউজিকটা একত্র করবেন। এখানে Insert হলো আলু বা আপনার মিউজিক ফাইলটি। হতে পারে সেটা FL Studio তেই কম্পোজ করা অথবা বাহির থেকে আনা কোনো কারাওকে (karaoke)। FL Studio-তে কম্পোজ করলে সেটা আর আলাদাভাবে Insert এ নিয়ে আসতে হয় না। তবে বাহিরের কোনো কারাওকে যদি আনতে চান তাহলে সেটা Insert 1, 2, 3……99 এ প্রবেশ করাতে হবে। এখন প্রশ্ন হলো প্রবেশ করাবেন কীভাবে?
    • প্রথমে karaoke ফাইলটি ড্রাগ করে Playlist এ এনে ছাড়ুন।
    • এরপর Pattern-এ karaoke ফাইলটার ডানপাশে লম্বা সবুজ আলো জ্বলা অবস্থায় Insert 1 এ গিয়ে মাউসের ডান বাটন ক্লিক করুন।
    • এবার Link selected channels থেকে To this track (Ctrl+L) এ ক্লিক করলেই ফাইলটি Insert 1 এ চলে যাবে।

যাই হোক। আপনার আলুসিদ্ধ এখন তৈরি। এবার ডিম রেডি করার পালা। লক্ষ করে দেখুন Send 1 বা ডিম এর Link selected channels এর To this track অপশনটি ডিজেবল বা মরা। এর কারণ কী বলুন তো? এর কারণ হলো আমরা কাঁচা ডিম খাই না।  তার মানে আমাদের ডিমটা ভাজতে হবে।

এই ভাজা ডিমটা হবে ভোকাল (Vocal) অর্থাৎ যেটা গলায় রেকর্ড করবেন। রেকর্ড করার জন্য Send 1 এর উপরে মাউস রেখে ডান বাটনে ক্লিক করবেন। এখন open audio editor বা Open audio logger (দুটোর পার্থক্য কাজ করলেই বুঝবেন) এ ক্লিক করলে দেখবেন যে Edison ওপেন হবে। সেখানে Record বাটন চাপলেই আপনার ভোকাল রেকর্ড হবে। রেকর্ড বাটন তো আর চেনাতে হবে না। চারকোনা বক্সের ভিতর একটা বৃত্ত থাকলেই সেটা আমরা রেকর্ড বাটন ধরে নিই যা রেকর্ডিং-য়ের সময় লাল রং ধারণ করে।

এখন প্রশ্ন। Insert 1 এ ও তো open audio editor ছিল। তাহলে আমরা সেখানে কেন রেকর্ড করলাম না? এটার ব্যাখা আমি ধরা বিষয় থেকেই দিতে পারি। আলু সিদ্ধ করার পর আপনি নিশ্চয়ই আবার ভাজবেন না। ঠিক তাই। তবে এর যুক্তিযুক্ত ব্যাখা হলো এরকম।
আমরা তো গরীব মানুষ। আমাদের কি আর একদম প্রফেশনাল ব্যান্ডদের মতো অতো বাদ্যযন্ত্র কেনার টাকা পয়সা আছে? ওরা FL Studio সফটওয়্যারটাই ব্যবহার করে। কিন্তু বাদ্যযন্ত্রগুলোও প্লাগিন করে নেয় অর্থাৎ FL Studio তে যুক্ত করে। যুক্ত করার পর একেকটা বাদ্যযন্ত্রের জন্য একেকটা Send অপশন থাকে।

এরপর যা বাজায় তা আলাদা আলাদাভাবে Send বা Insert অপশনে রেকর্ড হয়। আর ডিম আর আলুসিদ্ধ-এর বিষয়টি আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে উল্লেখ করেছি।
ইশ! ডিমে তো মসলা দেওয়া হয় নি। চিন্তার কিছু নেই। FL Studio তে মসলাগুলো একটু পরেই দিতে হয়।
আলু বা Insert এ মসলা দেবার জন্য Insert 1 সিলেক্ট করে FX Slot থেকে বিভিন্ন ইফেক্ট সিলেক্ট করে ব্যবহার করুন। এই ইফেক্টগুলোই হলো মসলা।

মসলা দেবার পারদর্শিতা নির্ভর করে আপনি কীভাবে উপাদানগুলোর কম্বিনেশন মেইনটেইন করছেন। আর তাই আপনি যত ইফেক্টগুলো দেখবেন আর প্র্যাকটিস করবেন তত স্মার্টলি Mixer and Mastering এ সফল হবেন। মিউজিক আর ভোকাল কখনই আলাদা শোনাবে না।

শেষে বাকী থাকে 4. Master অংশ। এটা কিছুই না। খাবারগুলোর স্বাদ আপনি কীভাবে নিচ্ছেন এটাই Mastering. মিউজিক আর ভোকাল যখন ঠিক হয়ে গেল তখন ঐ দুটো জিনিসেই যদি একসাথে Effect দিতে চান তখন এটির দরকার হবে। অর্থাৎ পুরো ট্র্যাকটার সাউন্ড বা ইফেক্টগুলো কেমন হবে সেটিই মূলত করা হয় এখানে। তবে সব গানের ক্ষেত্রে সব ইফেক্ট লাগে না। আবার অনেক গানে উপরের কোনোটার ব্যবহারই তেমন লাগেনা। তাই চিন্তার কিছু নেই।

ADs by Techtunes ADs

দ্রুতই আলোচনা করব কী কী Effect গুলো ব্যবহার করলে একটা গান প্রফেশনাল একটা স্টুডিও কোয়ালিটির গানের মতো বানানো যায়। আপাতত আপনারা নিজেরাই চেষ্টা করে দেখতে থাকুন। পরে ব্যাপারটা সহজ হবে। আর আজ নয়।
অনেক বেশি প্র্যাকটিস করতে থাকুন। আর সুন্দর সুন্দর কথার গানগুলো শুনুন। কারণ, সুরে কোনো অশ্লীলতা নেই। আর থাকা সম্ভবও না। অশ্লীলতা থাকে মানুষের কথায়। কেউ যখন আমাকে জিজ্ঞেস করে যে আমি আজকালকার গান শুনিনা কেন, তখন একটা উত্তরই দিই, “এখনকার গানগুলো শোনার জন্য তো আপনারা আছেনই, তবে যে গানগুলো হারিয়ে গেছে বা যাচ্ছে সেগুলো রক্ষা বা টিকে রাখার দায়িত্ব না হয় আমিই নিলাম। ”

দায়িত্ব আপনাকে নিতেই হবে। একটা সময় আসবে যখন আপনার ঐ সময়ের মডার্ণ গানগুলো খুবই অসহ্য লাগবে। বলবেন যে, পোলাপান কী সব শোনে! আমাদের সময় কত সুন্দর সুন্দর গান ছিল! তাহলে আপনার পরের প্রজন্ম যদি আপনাকে বলে যে, ‘বাবা, তুমি এখনকার মডার্ণ গান শোনোনা কেন?’ আপনার মনের অবস্থাটা কেমন হবে তা আপনিই চিন্তা করুন।

মডার্ণ গানগুলো শোনার একটা নির্দিষ্ট সংখ্যা থাকে। ঐ সংখ্যা পার হয়ে গেলে আর আপনার ঐ গানটি ভালোই লাগবে না। বরং উল্টো আপনি লজ্জাও পেতে পারেন। আর ‘কফি হাউজের সেই আড্ডাটা’ গানটির কথাই চিন্তা করুন। আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, ১০০০ বার শুনলেও গানটি কারো কাছে বিরক্তিকর লাগবে না।
তাই ভালো গান শুনুন সুন্দর গান শুধু। এমন গান শুনবেন না+করবেন না যা অশ্লীল বা অশ্লীলতার দিকে নিয়ে যায়।

Me on Facebook>>

FL Studio Group>>

Youtube Channel>>

ADs by Techtunes ADs
Level 1

আমি মামুন মেহেদী। Civil Engineer, The Builders, Bogra। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 93 টি টিউন ও 361 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 9 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

আমি আপনার অবহেলিত ও অপ্রকাশিত চিন্তার বহিঃপ্রকাশ।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস