ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

“ওয়েব ডিজাইন” স্বপ্নের ক্যারিয়ার শুরু থেকে সফলতা – যেমন হবে আপনার পথ চলা [পর্ব-০৪]

সবাইকে এই পর্বের টিউনে যাচ্ছি শুভকামনা। যারা কষ্ট করে সবগুলো টিউন পরছেন, আশা করি কিছুটা হলেও উপকৃত হয়েছেন। আপনাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাদের মূল্যবান সময় ব্যয় করে আমার টিউন গুলো পড়ার জন্য। টিউন গুলো পড়ে আপনারা বিন্দু মাত্র উপকৃত হলে আমার টিউন লেখা এবং আপনাদের টিউন পড়া উভয়ই সার্থক!

ADs by Techtunes ADs

গত পর্বে আমি সফলতা নিয়ে আলচনা করেছি। সফল হবার জন্য মোটামোটি গাইডলাইন দেয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু সব কিছুর পর একটা ভয় যে মনে থেকেই যায়! আমি কি আশাকরি টিউনটি পড়ার পর আপনি পানির মত বুঝে যাবেন এবং পেয়ে যাবেন আপনার প্রশ্নের উত্তর :mrgreen:

সবশেষে যেভাবে হতাশা কাটিয়ে সামনে এগিয়ে যাবেন সেই উপায় ও বর্ণনা করেছি। আগেই বলেছিলাম "হতাশ হয়ে ফিরে যেতে দিবো না" 😀

আপনি কি পারবেন ওয়েব ডিজাইনার হতে?

সবকিছুর পড়ে ও একটা প্রশ্ন থেকে যায়, আপনি কি পারবেন ওয়েব ডিজাইনার হতে? সবাই ওয়েব ডিজাইন শেখা শুরু করার আগে অন্তত মনে মনে এটা অবশ্যই ভাবে "আমি কি পারবো ওয়েব ডিজাইনার হতে?" এই প্রশ্নের উত্তর আপনাকে নিজেই দিতে হবে। নিচের প্রশ্ন গুলোড় উত্তর দিতে থাকুন, এবং শেষে গিয়ে আপনি আপনার উত্তর পেয়ে যাবেন।

১. আপনি কি সৃজনশীল চিন্তা ভাবনা করতে পছন্দ করেন?

ওয়েব ডিজাইন অবশ্যই একটি সৃজনশীল কাজ। আপনাকে নতুন কিছু তৈরি করতে শিখতে হবে, নতুন কিছু ভাবতে হবে। ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে সৃজনশীল হওয়া আবশ্যক।

Every child is an artist. The challenge is to remain an artist after you grow up

- Pablo Picasso

২. আপনার কি পর্যাপ্ত সময় আছে?

ADs by Techtunes ADs

ওয়েব ডিজাইন এর জন্য পর্যাপ্ত সময় অবশ্যই জরুরী। ওয়েব ডিজাইন শেখা এবং করা দুটোর জন্যই যথেষ্ট সময় দরকার।

৩. আপনার কি ধৈর্য আছে?

ওয়েব ডিজাইন শিখতে এবং করতে হলে আপনাকে অবশ্যই প্রচুর ধৈর্যশীল হতে হবে। ধৈর্য ছাড়া ওয়েব ডিজাইনার হওয়া সম্ভব নয়।

৪. আপনি কি পড়তে আনন্দ বোধ করেন?

ওয়েব ডিজাইন এ উন্নতি করতে হলে আপনাকে প্রচুর পড়তে হবে। আর যারা পড়তে আনন্দ বোধ করে তারাই সহজে এবং মজায় এসব পড়াশোনা করতে পারবে।

(বিঃদ্রঃ পড়তে আনন্দ বোধ বলতে স্কুল কলেজের বই পড়তে আনন্দ বোধ এর কথা বোঝানো হয়নি। আপনার যে বিষয় ভালো লাগে, যেমনঃ গল্প, কবিতা, উপন্যাস, অথবা কম্পিউটার সম্পর্কিত বই সে সব বিষয় নিয়ে পড়তে যদি আপনি আনন্দ বোধ করেন তাহলেই চলবে। এতে বোঝা যাবে, আপনার আগ্রহের বিষয়ে পড়তে আপনার খুব কষ্ট হবে না। )

৫. আপনি কি ইংরেজি জানেন?

ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে ইংরেজি জানা প্রয়োজন। ভালো খারাপ মুল নয়। আপনাকে অন্তত ইংরেজি জানতে হবে। ইংরেজি জানা থাকলে সেটিকে ভালো করা ব্যাপার না। অনেকেই এটির সাথে হয়তো দ্বিমত পোষণ করবেন যে ওয়েব ডিজাইনার হতে ইংরেজি জানার কি প্রয়োজন? অবশ্যই প্রয়োজন আছে। ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে সফল হতে হলে আপনাকে ভালো ইংরেজি জানতেই হবে।

৬. ওয়েব ডিজাইন এর প্রতি আপনার আসলেই আগ্রহ আছে?

ওয়েব ডিজাইন সম্পর্কে মোটামোটি এত কিছু জানার পর আবার ভেবে দেখুন, আপনার কি সত্যি ওয়েব ডিজাইন এর উপর আগ্রহ আছে? আপনি কি এখনো যেকোনো মুল্যে ওয়েব ডিজাইনার হতে চান?

ADs by Techtunes ADs

আপনি কি অনেক সময় অনেক ওয়েবসাইট এ ভিজিট করার পর সেটির ডিজাইন দেখে আভিভুত হন? ভাবেন যে "ইশশ. যদি আমিও এমন একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারতাম!" বা "কি দারুণ করেই না ওয়েবসাইট টি বানিয়েছে!" অথবা এরকম কিছু? উত্তর যদি হ্যা হয় তবেই আপনি বুঝে যাবেন আপনার ওয়েব ডিজাইন এর প্রতি আগ্রহ আছে।

৭. আপনি কি মানুষের সাথে কথা বলতে পছন্দ করেন?

ওয়েব ডিজাইনার দের এটি একটি বিশেষ গুন থাকতে হয়। তারা অন্যের সাথে কথা বলতে পারদর্শী। বিভিন্ন ধরনের মানুষের সাথে তারা সহজেই কথোপকথন এর মাধ্যমে মিশে যায়। আপনাকেও ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে নিজের মধ্যে এসব গুন তৈরি করতে হবে।

কারণ আপনার এই কথা বলার গুন দিয়েই আপনাকে বিভিন্ন মেজাজ, বিভিন্ন সভাব এর ক্লায়েন্ট কে পটাতে, তাদের সাথে সুন্দর ভাবে কাজ করতে এবং তাদের খুশি করতে হবে।

৮. আপনি কি শ্রেষ্ঠত্বে বিশ্বাসী?

আপনার ডিজাইন সব সময় শ্রেষ্ঠ হতে হবে। কারণ আপনার ক্লায়েন্ট আপনার কাছে এটাই প্রত্যাশা করে। আপনি যদি শ্রেষ্ঠত্বে বিশ্বাসী হন, তাহলে আপনি শ্রেষ্ঠ ওয়েব ডিজাইন করতে এবং শ্রেষ্ঠ ওয়েব ডিজাইনার হতে সক্ষম।

We aren’t designing photocopies of web pages, we’re designing web pages

- Andy Clarke

৯. আপনি কি পরিশ্রমী বা পরিশ্রম করতে প্রস্তুত?

সফল ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে পরিশ্রমী হতে হবে। পরিশ্রম ছাড়া এ রাস্তায় শুধু হতাশা পাবেন।

ADs by Techtunes ADs

১০. আপনি কি এই সম্পূর্ণ টিউনটি পড়েছেন?

আপনি যদি সম্পূর্ণ টিউনটি পড়ে থাকেন তবে এটি আপনার ধৈর্য, পড়ার আগ্রহ, ওয়েব ডিজাইনার হবার যোগ্যতা প্রমাণ করে। সম্পূর্ণ টিউন পড়েননি? ধৈর্য নেই? পড়ার আগ্রহ নেই বা ভালো লাগে না? এগুলো আপনার দুর্বল দিক। আপনাকে ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে অবশ্যই এসব দুর্বল দিক গুলো ঠিক করতে হবে।

উপরের সবগুলোর উত্তর যদি হ্যা! হয়ে থাকে তাহলে আপনি ওয়েব ডিজাইনার হতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত। আপনি ওয়েব ডিজাইন শেখা শুরু করে দিন, আপনিই সফল হবেন।

কয়েকটি বা বেশ কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর "না"? হতাশ হবার কোন দরকার নেই।

হতাশ না হয়ে নিজেকে গড়ে তুলুন

নিজেকে গড়ে তোলাটা ওয়েব ডিজাইনার হবার আগে বা ওয়েব ডিজাইন শেখার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। নিজের ভুল ত্রুটি ও অক্ষমতা গুলো দূর করা গড়ে তোলার প্রথম পদক্ষেপ। আপনার কি কি অক্ষমতা আছে সেগুলো বের করুন। আপনার কি কি দুর্বলতা আছে সেগুলো বের করুন। আপনার কি কি ভুল আছে সেগুলো বের করুন। এরপর এসব সংশোধন করুন।

  • আপনার চিন্তা ভাবনার পরিবর্তন করুন। নতুন কিছু চিন্তা করার চেষ্টা করুন। এমন কিছু ভাবার চেষ্টা করুন যা পূর্বে কখনো হয় নি। নিজের বিবেক ও নিজের জ্ঞান দিয়ে কোন কিছু ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করুন। এগুলো আপনার সৃজনশীল চিন্তাধারার বিকাশ ঘটাবে।

Everything is designed. Few things are designed well

- Brian Reed

  • নিজেকে সময় দিয়ে বেধে দিন। আপনি সারাদিন কি কি কাজ করবেন কখন করবেন সবকিছুর একটা সময় নির্ধারণ করে নিন। এবং সেই অনুযায়ী কাজ করার চেষ্টা করুন। সবসময় চেষ্টা করবেন সময় বাচাতে। অজথা সময় নষ্ট করা থেকে বিরত থাকুন। আপনার ১০০% সময় কাজে লাগানোর চেষ্টা করুন।
  • ধৈর্য বারানোর চেষ্টা করুন। যেকোনো কাজ ধৈর্য ধরে করুন। কষ্ট হলেও নিজেকে চেপে ধরে কাজ করুন। ধীরে ধীরে অভ্যাস হয়ে যাবে। এবং আপনার ধৈর্য বেড়ে যাবে।
  • পড়াশোনা আমাদের অনেকেরই ভালো লাগে না। এটাই স্বাভাবিক। আমাদের আসলে বই পড়ে অভ্যাস নেই। আপনার যে বিষয় টি ভালো লাগে সেটি নিয়ে বই পড়ার অভ্যাস করুন। নিয়মিত বই পড়ুন। পড়ার মাঝে আনন্দ খুঁজে নেয়ার চেষ্টা করুন।
  • ইংরেজি তে দুর্বলতা থাকলে নিয়মিত ইংরেজি চর্চা করুন। ইংরেজি কে ভয় করবেন না, ভয় করলেই ইংরেজি কঠিন লাগে। নিয়মিত একা একা বা কাছের মানুষের সাথে ইংরেজি তে কথা বলার চেষ্টা করুন। ভুল হবেই, ভুল না করে শিখতে পারবেন না। ভুল গুলো শুধরিয়ে নিয়েই ইংরেজি তে দক্ষ হতে পারবেন। নিয়মিত ইংরেজি পত্রিকা পড়ুন, বোঝার দরকার নেই, এক সময় এমনেই বুঝতে শুরু করবেন। ইংরেজি নাটক, মুভি দেখুন। এটি ইংরেজি শেখার খুব কার্যকর একটি মাধ্যম। ইংরেজি ছবি গুলো থেকে কিছু ইংরেজি সংলাপ শিখে নিন, এবং সেগুলো ক্ষেত্র বিশেষে প্রয়োগ করার চেষ্টা করুন। আপনার চেষ্টাই আপনাকে সফল করবে। আমাদের এক বাংলা শিক্ষক, ইংরেজি তে দুর্বল ছিলেন। কিন্তু ইংরেজি শেখার প্রতি তার ছিল ঘোর আগ্রহ। সে অনবরত চেষ্টা করে যেত, গড়গড় করে ইংরেজি বলে যেত, যদিও এর মধ্যে একটি বাক্য ও সঠিক হতো কিনা সন্দেহ। একদিন স্যার ক্লাস এ কথায় কথায় বললেন " You ask she, her will answer you" এটা নিয়ে আমরা বন্ধুরা খুব মজা করতাম। কিন্তু আমি আবার ইংরেজির প্রতি কৌতূহলী ছিলাম এবং মোটামোটি ভাল ইংরেজি জানতাম। তাই স্যার এর এই জিনিসটা আমার নজরে পরলো। তার অনবরত চেষ্টা। তার চেষ্টা দেখে অনুপ্রাণিত হলাম। এবং এই কারনে স্যার এর প্রতি আমার সম্মান টা বেড়ে গিয়েছিল। বলা বাহুল্য, তিনি এখন খুব সভাবিক ভাবেই স্পষ্ট এবং সঠিক ইংরেজিতে কথা বলতে পারেন। তাই আপনাকেও বলছি, লজ্জা ভুলে ইংরেজি চর্চা করুন। আপনাকে কেও থামাতে পারবে না।
  • অনেকের এই সমস্যা টা আছে, মানুষের সাথে বেশি কথা বলা পছন্দ করেন না। আমার নিজের ও এই সমস্যা আছে। একটু কথা বলে আর কি বলবো ভেবে পাই না। সুন্দর করে রস কষ মেখে কথা বলে কাওকে পটাতে পারি না। আপনাকে এই বদভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। মানুষের সাথে সুন্দর ভাবে, মনের মাধুরী মিশিয়ে 😛 কথা বলতে শিখুন। মানুষকে কথার মধ্যমে ঘায়েল (পটাতে) চেষ্টা করুন। আপনার ওয়েব ডিজাইন ক্যারিয়ার এ এই স্কিল টি আপনার অনেক কাজে দেবে।
  • নিজেকে শ্রেষ্ঠ করার চেষ্টা করুন। নিজের কাজ গুলো সবসময় শ্রেষ্ঠ করার চেষ্টা করুন।
  • অলসতা এক বিরাট রকম সমস্যা। আপনাকে অলসতা ছেরে পরিশ্রমী হতে হবে। নিজেকে নিজে চেলেঞ্জ করুন, কাল করবো, পরশু করবো বলে বসে না থেকে আজই করুন। এখনি করুন।
  • এই মুহূর্তে একটি ভালো অনুশীলন হচ্ছেঃ আপনি যদি পুরো টিউনটি না পড়ে থাকেন, তবে শুরু থেকে পুরোটা আবার পড়ুন। নিজেকে নিজে চেলেঞ্জ দিন। আপনি পারবেনই। আপনাকে পারতে হবে। এতে আপনি আপনার অলসতা, ধৈর্য, পড়ার অভ্যাস এগুলো করতে পারবেন কিনা প্রমাণ হয়ে যাবে।
  • আবার বলছি, একটু পর বা কাল অথবা পরশু নয়। এখন ই করুন। নয়তো সফলতা আপনাকে ফেলে সামনে এগিয়ে যাবে, আপনার সামনের জনকে বেছে নিবে। সুযোগ বারবার আসে না, তাই সুযোগ হারাবেন না।

আমি একটা কথায় চরম বিশ্বাসীঃ মানুষ পারে না এমন কোন কাজ নেই। তাই আমি বলছি, আপনি চাইলে আপনিও পারবেন। শুধু দরকার আপনার স্বদিচ্ছা।

আমি আছি ফেসবুক এঃ Rakibul Hasan

ADs by Techtunes ADs

<< ৩য় পর্বের টিউন / সকল পর্বের টিউন / ৫ম পর্বের টিউন >>

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি কম্পিউটার লাভার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 1266 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 16 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Also known as "Raiku Saiko". React.js & Javascript Developer. Former Wordpress Developer, Front-end Designer. Technology Addicted.


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

আপনার টিউন গুলো চরম হচ্ছে ভাই। চালিয়ে যান

ভাই আমার ৫ এবং ৭ নং গুলোতে প্রকট সমস্যা। আমি কি পারব?

    @রাজিব: 🙂 এই সমস্যা টা প্রায় সবার ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে । “নিজেকে গড়ে তুলুন” এখানে আমি সমাধান দেয়ার চেষ্টা করেছি । সেভাবে চলার চেষ্টা করুন পারবেন । নিজের অভ্যাস পরিবর্তন করতে শিখুন, নিজের এবং অভ্যাস এর উপর কন্ট্রল রাখতে শিখুন । অবশ্যই পারবেন, ইনশা আল্লাহ্‌ !

আমার মনে হয় এই পর্বটি সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কথাগুলো মানতেই হবে।

বুঝলাম যে আমি ওয়েব ডিজাইনার হতে প্রস্তুত!!

প্লিজ প্লিজ,টিউনগুলো পিডিএফ আকারে শেয়ার করুন। 🙁

আপনার প্রতিটা টিউন লম্বা হলেও কিভাবে যে তারাতারি শেষ হয়ে যায় বুঝাই যায় না। আর লম্বা করে লিখবেন হাহা।

    @fayjur: 😀 সব গুলো টিউন একসাথে পোস্ট করার ইচ্ছা ছিলো, প্রায় ১০০০০+ শব্দ হয়ে যাওয়ায় ওয়ার্ডপ্রেস থেকে এটা সেভ হচ্ছিল না, তাই ৬ টা অংশে ভাগ করে পোস্ট করেছি । আগামী টিউন গুলো একেকটা নোভেল সাইজ লিখবো 😉

    ধন্যবাদ /

Level 0

চরম লাগল । কিন্তু আমার শুধু একটাই প্রবলেম — ধৈর্য কম