ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ওয়েব ডিজাইন নাকি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট?

ওয়েব ডিজাইন নাকি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট?
ওয়েব ডিজাইন নাকি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট?

ভাই কোনটা ভালো? ওয়েব ডিজাইন নাকি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট? কোনটা শিখলে বেশি টাকা কামানো যায়? কোনটা শিখলে তারা তারি বড় লোক হতে পারবো?

ADs by Techtunes ADs

হইছে ভাই থামেন এখন। এতো প্রশ্ন কেন করেন? উত্তর দেই ১ কথায় অকে?

সব কিছু নির্ভর করবে আপনার উপর। প্রশ্ন করলেন না কেন এমন বললাম?

উত্তর দেই আগে। কারণ টা হলো আপনি যেটাতে যত দ্রুত শিখে নেবেন তত দ্রুত আপনি উপরে উঠতে পারবেন। আহা ভাই, যদু মদু কদু না। প্রো হতে হবে প্রো। বুঝাইতে পারছি নাকি ভাই? যদি না বুঝেন তাহলে আবার পড়েন। যদি বুঝে যান তাহলে নিচে নামি। না মানে বিস্তারিত লিখি।

আপনারা অনেকেই আছেন যারা মনে করেন যে, "ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট" এর মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপমেন্ট  দুইটা টি আলাদা বিষয়। যদিও আলাদা তবুও একটি বিষয়ের সাথে অন্য বিষয়টি অতপ্রত ভাবে জড়িত।  আপনি যে কোন একটি বিষয়ে পারদর্শী  হলেও কাজের এর নিশ্চয়তা পাবেন। একটা ওয়েব সাইট এর মুলত ২ টি অংশ থাকে। একটি হচ্ছে আপনি যা দেখছেন বা ফ্রন্ট ইন্ড অন্যটি হচ্ছে আপনি যা দেখছেন তা কি ভাবে আসছে বা আপনি যা দেখতে চাচ্ছেন তা কিভাবে দেখাচ্ছে বা ব্যাক ইন্ড। ওয়েব ডিজাইনার মুলত ফ্রন্ট ইন্ড এর কাজ করে ও ওয়েব ডেভেলপের ব্যাক ইন্ড এর কাজ করে।

এখন মনের মধ্যে প্রশ্ন জাগতে পারে  ভাই ফ্রন্ট ইন্ড আবার কি জিনিশ? থামেন ভাই ক্লিয়ার করে দিতেছি।

কিছুটা আন্দাজ করতে পারছেন সম্মুখ দিককে বুঝানো হয়েছে। আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইটটি/ব্লগসাইটটি বানান সেটা আপনার ভিজিটররা যেভাবে দেখতে পাবে, সেটাই হচ্ছে ফ্রন্ট-ইন্ড। ফ্রন্ট-ইন্ড থেকে সাধারণত কিছু দেখা, পড়া বা পাওয়া যায়। তবে ডায়নামিক ওয়েবসাইটের ফ্রন্ট-ইন্ড থেকে কোনো কিছু ইনপুটও করা যায়। যাই হোক, সহজ ভাষায়- একজন ভিজিটর একটা ওয়েবসাইটকে যেভাবে দেখতে পায় সেটা হচ্ছে ঐ ওয়েবসাইটের ফ্রন্ট-ইন্ড। মনে হয় বুঝেছেন। তাহলে এবার ব্যাক ইন্ড এর দিকে যাই নাকি?

তাহলে বলি ব্যাক ইন্ড নিয়ে।

ব্যাক-ইন্ড হচ্ছে ফ্রন্ট-ইন্ডের সম্পূর্ণ বিপরীত। মানে হলো একজন ডেভেলপার যখন একটা ওয়েবসাইট তৈরি করেন/ডেভেলপ করেন তখন তিনি পেছনে যে সব কাজ করেন সেগুলো ব্যাক-ইন্ড। মনে রাখবেন একজন ডেভেলপারকে ব্যাক-ইন্ড সম্পর্কে খুব সচেতন হতে হয়। তবে আমি মনে করি, ভালো একজন ডেভেলপার হতে চাইলে ফ্রন্ড-ইন্ড সম্পর্কেও ধারণা ক্লিয়ার থাকতে হবে। কেন? কারণ, আপনি যদি প্রচুর সার্ফিং করেন তাহলে একটা ওয়েবসাইটের ফ্রন্ট-ইন্ড দেখেই আপনি বুঝবেন সাইটটি কোন ধরনের স্ক্রিপ্ট দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। যদি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ডেভেলপ করা হয়ে থাকে তাহলে কী থিম ব্যবহার করেছে, কি কি প্লাগিন ব্যবহার করেছে বুঝতে চেষ্টা করুন। যা আপনার স্কিল দ্রুত ডেভেলপ করবে। বুঝেছেন?

তাহলে এবার আবার মূল আলোচনায় ফিরে যাই। যেখানে ছিলাম সেটা হলো একজন ওয়েব ডিজাইনার একটি সাইটে নানা রকম ডিজাইন করেন। তিনি শুধু সাইট এর প্রদর্শন অববয় করেন। এখানে কোন অ্যাপ্লিকেশন থাকবে না। ওয়েব ডিজাইন শেখা অত্যন্ত সহজ আপনি ইচ্ছা করলে মাত্র ২-৩ মাসের মধ্যে একজন ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন। ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে আপনাকে (X)HTML এবং CSS এর পাশাপাশি Basic jQuery, JavaScript, PHP শিখতে পারেন। যে কথা গুলা আমি আমার আগের টিউনেই উল্লেখ করেছি।  নানা রকম Framework যেমন, Bootstrap,  Css LesFramework ইত্যাদি। এছাড়া, আপনাকে ফটোশপ এর কাজ জানতে হবে। কেননা, আপনি যদি একজন ওয়েব ডিজাইনার হন তাহলে আপনাকে অবশ্যই সাইট এর ব্যানার, টিউনার এবং বিভিন্ন ধরনের বাটন তৈরি করতে হবে।

ADs by Techtunes ADs

যদি আগের টিউন না পড়েন থাকেন তাহলে অনুরোধ থাকবে পড়ার জন্য।

পূর্বের টিউনের লিঙ্কঃ

ওয়েব ডিজাইন শিখুন, ক্যারিয়ার গড়ুন।

ওয়েব ডিজাইন শিখুন, ক্যারিয়ার গড়ুন পর্ব ০২  আশা করি এই বিষয়টা মোটামুটি ক্লিয়ার হয়েছে। তাইনা? যদি তাই হয় তাহলে আমি চলে যাব ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর দিকে।

একটি ওয়েবসাইটে কখন কখন বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়ে  থাকে। যেমন রেজিস্টেশন করা, ওর্ডার করা, নতুন তথ্য আপডেট করা। এই কাজ গুলা করার জন্য বিভিন্ন সার্ভার সাইড স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আপনি যদি নিজেকে একজন ওয়েব ডেভেলপার হিসাবে তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই নির্দিষ্ট ধাপে বিভিন্ন ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে হবে। যেটা গত পর্বেও বলেছি আবারও মনে করিয়ে দিচ্ছি।

ওয়েব ডেভেলপ হচ্ছে ওয়েব সাইট এর জন্য অ্যাপ্লিকেশন। এখানে আপনাকে কোডিং এর মাধ্যমে নানা ধরনের অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে হবে।  আপনি যদি ওয়েব ডেভেলপার হতে চান তাহলে ধৈর্য, পরিশ্রম ও মনোযোগের প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে অনেক সময় প্রয়োজন। ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে আপনাকে (X)HTML, CSS, jQuery, JavaScript, PHP, MySQL, Java, ইত্যাদি CMS সম্পর্কে ভালো জানতে হবে। এছাড়া Server related যেমনঃ ASP,  .NET, AJAX, ইত্যাদি জানতে হবে

যদিও অনেক বেশি কিছু মনে হচ্ছে কিন্তু আপনি যদি মনযোগ দিয়ে ২ মাস এ সব বিষয় নিয়ে কাজ করেন তাহলে খুব সহজেই এ ব্যবপার গুলো কাভার করতে পারবেন। একজন ভালোমানের ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই লজিকাল ও আন্যালাইসিস করার ক্ষমতা থাকতে হবে। এছাড়াও ধাপে ধাপে কাজ করার বিষয়টা বুঝতে  হবে। বিভিন্ন ফ্রিল্যন্সিও সাইটে এর উপর প্রচুর কাজ থাকে। এছাড়াও আপনি আপনার ওয়েবসাইট সেল করার জন্য বিভিন্ন সাইটে/মার্কেট প্লেসে রাখতে পারেন।

অনেক পড়া লেখা হলো এবার শেখা শুরু করে দিন। আজের মত আসি দেখা হবে আগামীতে নতুন কিছু নিয়ে। ভাল লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

লেখাঃ শিশির চৌধুরী

প্রথম প্রকাশিতঃ সি টেক ব্লগ

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 8

আমি এম এইচ মামুন। Supreme Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 119 টি টিউন ও 128 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 41 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

{জানিয়ে দাও} (,) {না হয় জেনে নাও}


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস