ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

Windows 8 এর Family Safety, আপনার PC যেই ব্যবহার করুক না কেন থাকবে আপনার পূর্ন নিয়ন্ত্রন

Windows 8 এর একটি অত্যন্ত উন্নত ফিচার হচ্ছে Family Safety. যারা windows 7 এ Parental controls ব্যবহার করেছেন তারা এটি খুব সহজেই বুঝতে পারবেন। windows 7 এর Parental controls কে অনেকাংশে upgrade ও modify করে অনেক নতুন অপশন যুক্ত করে একে Family Safety নামে প্রকাশ করা হয়েছে। মুলত নিজের কম্পিউটার কে অন্য কারো access থেকে নিয়ন্ত্রন করতে ও বাচ্চাদের অনুপোযোগী দিক গুলোকে (যেমনঃ Adult sites, Adult games ইত্যাদি) বাচ্চাদের নাগালের বাইরে রাখতে ও বাচ্চাদের পড়ালেখার সময় তাদের কম্পিউটারের প্রতি আসক্তি থেকে মুক্ত রাখার জন্যই এই Family Safety.

ADs by Techtunes ADs

Administrative user এ Family safety ব্যবহার করা যায় না। Administrative user ছাড়াও আরো একটি Standard user রাখতে হবে যেটি আগন্তুক বা আপনার ঘরের বাচ্চাকাচ্চারা ব্যবহার করবে। এই Standard user টায় আপনি Family safety ব্যবহার করে রাখতে পারবেন সম্পুর্ন নিয়ন্ত্রনে।

এখন এক নজরে দেখুন আপনি কি কি বিষয়ের উপরে ও কি ভাবে নিয়ন্ত্রন রাখতে পারবেন এই user এর কার্যক্রমের উপর।

1. Time Limits: সপ্তাহের কোন কোন দিন কয়টা থেকে কয়টা এবং দিনে সর্বোচ্চ কতক্ষন ব্যবহার করা যাবে তা আপনি নির্ধারন করে দিতে পারবেন। Week day এবং Week End এ আলাদা আলাদা ভাবে এই সময় নির্ধারন করা যাবে।

2. Web filtering: এই অপশন ব্যবহার করে ঠিক কি ধরনের Web site এই user থেকে visit করা যাবে তা নির্ধারিত করে দিতে পারবেন। এছাড়া আপনি চাইলে নির্দিষ্ট কিছু website ব্যাতীত বাকি সব website বন্ধ করে রাখতে পারবেন। সেই সাথে ফাইল ডাউনলোড করা যাবে কি যাবে না সেটির নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন।

3. Game and Windows Store Restrictions: এই অপশন এর মাধ্যমে Windows store এর বিভিন্ন app এবং Game এর নিয়ন্ত্রন রাখতে পারবেন। নির্দিষ্ট রেটিং (যেমনঃ child, mature, adult rating) এর app ও game ব্যতীত অন্য সকল app ও game বন্ধ করে রাখা যাবে।

4. App restrictions: এটি সবচেয়ে প্রয়োজনীয় একটি ফিচার। এই ফিচার এর মাধ্যমে operating system program এবং আপনার নির্ধারন করে দেয়া কিছু সফটওয়্যার ও প্রোগ্রাম ছাড়া আর কোন সফটওয়্যার ও প্রোগ্রাম সেটআপ করা যাবেনা। এর সাথে সেটআপ করা সফটওয়্যার এর মধ্যেও আপনার নির্ধারিত সফটওয়্যার গুলো ছাড়া অন্য সফটওয়্যার চালানো যাবে না। এটি আপনার ফাইল এর নিরাপত্তার বিধানের পাশাপাশি প্রোগ্রাম ভাইরাসের হাত থেকেও আপনার নিরাপত্তা বিধান করবে।

5. Activity reports: এটি আপনাকে দেবে বিগত এক সপ্তাহের বিস্তারিত রিপোর্ট। এই রিপোর্টে যা যা থাকবে তা হলঃ

  • কবে, কখন ও কতক্ষন user কাজ করেছে।
  • কি কি website visit করেছে ও কতক্ষন করেছে।
  • কি কি website ভিসিট করতে চেয়েছিল কিন্তু family safety তা ব্লক করেছে।
  • কি কি software ব্যবহার করা হয়েছে ও Game খেলা হয়েছে ও কতক্ষন।

এই সব কিছুর পর ও যদি আপনার নিজেরই কখনো এই user কে ব্যবহার করতে হয় তবে আপনার administrator password দিয়ে ব্লক করা যে কোন কিছু আনব্লক করে এই বসেই কাজ করতে পারবেন। তবে কাজ শেষে আনব্লক করা জিনিস গুলো administrator user এ ঢুকে পুনরায় ব্লক করতে ভুলবেন না। এখন দেখুন কিভাবে আপনি এই বিষয় গুলো সেটআপ করবেন।

প্রথমেই দেখতে হবে আপনার Family safety ব্যবহারের জন্য একটি standard user আছে কিনা। যদি আপনার সিস্টেমে একটি ইউজার থাকে তবে আরেকটি ইউজার তৈরী করুন এবং এটিকে Standard user হিসাবে রাখুন।

ADs by Techtunes ADs

এবার Administrator user থেকে Control panel এ যান ও Family Safety তে ক্লিক করুন।

এখন আপনার কম্পিউটারের ইউজার লিস্ট দেখাবে। এখানে আপনি যেই ইউজার এ Family safety দিতে চান তাতে ক্লিক করুন।

এতে নিচের মত একটি উইন্ডো আসবে।

এখানে স্ক্রিনশটের দেয়া নাম্বার অনুযায়ী কাজগুলো করুন,

  1. Family Safety অন বা অফ রাখতে on/off রেডিও বাটনে ক্লিক করুন
  2. Activity Report দেখার ব্যবস্থা রাখতে চাইলে On না চাইলে Off রেডিও বাটনে ক্লিক করুন
  3. Website নিয়ন্ত্রন কাজের জন্য Web Filtering এ এখানে ক্লিক করুন।
  4. User এর জন্য সময় নির্দিষ্ট করে দেয়ার জন্য Time Limits এ ক্লিক করুন।
  5. Game এর বাধ্যবাধকতার জন্য Windows store and game restriction এ ক্লিক করুন
  6. Software ও program নির্ধারনের জন্য App restriction এ ক্লিক করুন।
  7. বিগত এক সপ্তাহে User এর activity দেখার জন্য view activity reports এ ক্লিক করুন।

এবার বিস্তারিত দেখাচ্ছি কিভাবে বিভিন্ন বিষয় গুলোর নিয়ন্ত্রন সেটআপ করবেন।

Website Control

প্রথমেই ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রনের জন্য Web filtering এ ক্লিক করুন। এতে নিচের মত একটি উইন্ডো আসবে।

ADs by Techtunes ADs

যদি সকল সাইট উন্মুক্ত রাখতে চান তবে উপরের রেডিও বাটন আর যদি নির্দিষ্ট কিছু সাইট উন্মুক্ত রাখতে চান তবে নিচের রেডিও বাটনে ক্লিক করুন। এখন set web filtering level এ ক্লিক করুন। এতে নিচের মত আরেকটি উইন্ডো আসবে।

এখানে সবুজ বক্সের ভিতরে কয়েকটি ক্যাটাগরির ওয়েবসাইট আছে। কোন ক্যাটাগরি পর্যন্ত সাইট মুক্ত রাখতে চান তা সিলেক্ট করে দিন। যদি ডাউনলোড বন্ধ রাখতে চান তবে নিচের Block file downloads এ ক্লিক করুন। আর যদি নির্দিষ্ট কয়েকটি সাইট শুধু মাত্র খোলা রাখতে চান তবে Allow list only তে ক্লিক করুন। এখন আপনার Allow list এ যেসব website খোলা রাখতে চান সেগুলো যুক্ত করতে হবে। এ জন্য পাশের Allow or Block websites এ ক্লিক করুন। এতে Allow list আসবে। এখানে যেসব সাইট আপনি উন্মুক্ত রাখতে চান সেসব Web Address লিখে allow এ ক্লিক করে allow list এ যুক্ত করুন। তাহলে আপনার Allow list ছাড়া বাদ-বাকি সব সাইট ই ব্লক হয়ে যাবে ও access করা যাবে না।

Time Control

সময় নির্ধারনের জন্য Time limits এ ক্লিক করুন। নতুন উইন্ডোতে দুটি অপশন দেখতে পাবেন।

প্রথম অপশন Set time allowance, এই অপশন ব্যবহার করে আপনি সপ্তাহের কোন কোন দিন কত ঘন্টা করে user কাজ করতে পারবে তা নির্ধারন করে দিতে পারবেন। দ্বিতীয় অপশন set curfew, এই অপশন ব্যবহার করে দিনের কখন কখন user কাজ করতে পারবে তা নির্ধারন করে দিতে পারবেন। এই অপশন নির্ধারন করে দিলে সময় শেষ হবার ১৫ মিনিট আগে user কে warning দেবে কাজ গুছিয়ে log out করার জন্য।

Games control

Game control করার জন্য Windows store and Game restriction এ ক্লিক করুন। এতে নিচের মত একটি উইন্ডো আসবে।

যদি সকল গেম ও উইন্ডোজ স্টোর অ্যাাপ ব্যবহার উন্মুক্ত রাখতে চান তবে উপরের রেডিও বাটন আর যদি নির্দিষ্ট কিছু গেম ও অ্যাাপ দিতে চান তবে নিচের রেডিও বাটন সিলেক্ট করুন।
ব্লকিং এর জন্য এখানে দুটি অপশন পাবেন।
১. রেটিং অনুযায়ী গেম ব্লক
২. নির্দিষ্ট কোন গেম ব্লক
এবার রেটিং অনুযায়ী গেম ব্লক করতে চাইলে Set game and windows store ratings এ ক্লিক করুন। এখানে কোন রেটিং এর গেম allow করবেন তা সিলেক্ট করে দিন এবং কোন গেম এ রেটিং দেয়া না থাকলে সেটি allow হবে কি হবে না তার রেডিও বাটনে ক্লিক করে দিন।
যদি রেটিং এর মাধ্যমে না দিয়ে কোন নির্দিষ্ট গেম বা অ্যাাপ ব্লক করতে চান তবে দ্বিতীয় অপশন Allow or block specific games এ ক্লিক করুন। অ্যাাপ এবং গেম ইন্সটল করা থাকলে তার একটা লিস্ট দেখাবে এখানে কোন কোন অ্যাাপ ও গেম মুক্ত রাখবেন ও কোন কোন গেম ব্লক করবেন তা সিলেক্ট করে দিন।

সফটওয়্যার এবং প্রোগ্রাম নির্ধারন

সফটওয়্যার ও প্রোগ্রাম নিয়ন্ত্রনের জন্য App restriction এ ক্লিক করুন। এতে নিচের মত একটি উইন্ডো আসবে।

ADs by Techtunes ADs

সকল সফটওয়্যার মুক্ত রাখতে উপরের ও নির্ধারিত কিছু সফটওয়্যার উন্মুক্ত রাখতে নিচের রেডিও বাটনে ক্লিক করুন। এবার নির্ধারিত সফটওয়্যার এর ক্ষেত্রে নিচের বিশাল সফটওয়্যার লিস্ট থেকে যেসকল সফটওয়্যার ব্যবহারের অনুমতি দিতে চান তাতে টিক মার্ক দিন। অন্য কোন সফটওয়্যার এ টিক মার্ক না দিলেও বিভিন্ন ড্রাইভার ও এন্টিভাইরাস এ অবশ্যই টিক মার্ক দিয়ে allow করে রাখবেন। যদি লিস্টে না থাকে তবে নিচের Browse বাটনে ক্লিক করে Hard disk থেকে সফটওয়্যার/প্রোগ্রাম টি ব্রাউজ করে দিন।

তাহলে আপনার এই Standard user এ সম্পুর্ন রুপে Family safety activated হয়ে গেছে। এবার কম্পিউটার একটি রিস্টার্ট দিন ও এই standard user এ লগইন করুন। দেখবেন আপনার ব্লক করে দেয়া কোন কিছুতেই অ্যাক্সেস করতে পারবেন না। অ্যাক্সেস করতে হলে আপনার Administrative password লাগবে। তারপর আপনি আপনার Administrator user এ লগইন করে দেখুন আপনি একটু আগে standard user এ যা যা করেছেন তার একটি লিস্ট Activity report এ জমা হয়েছে।

সবাইকে ধন্যবাদ।

 

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি এস এ খান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 25 টি টিউন ও 275 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

এটা উইন্ডোজ ৭ এও আছে। প্রায় উইন্ডোজ ৮ এর মতই। তবে বুটেবল পেন ড্রাইভ দিয়ে রেস্ট্রিকশন বাইপাস করা সম্ভব।

    @omi97: ভাই বুট হচ্ছে windows এর parrent. বুট দিয়ে আপনি windows এর যেকোন সিকিউরিটি বাইপাস করতে পারবনে। এমনকি লাইভ উইন্ডোজ দিয়ে হার্ডডিক্স ছাড়াও শুধু র‍্যামের মধ্যে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে PC অপারেট করতে পারবেন। হার্ডডিক্স এ থাকা অপারেটিং সিস্টেমের কোন ক্ষতি/পরিবর্তন না করেই।
    এইটা হচ্ছে windows এর ভিতরে থাকা security.
    যদি আরও সিকিউরিটি দেয়া লাগে তবে Bios password দিলে এটিই অনেক কার্যকরী হয়ে উঠবে। (bios pass ও হয়তো বাইপাস করা সম্ভব)

    আর এইটার মত একটা অপশন যে আছে windows 7 এ parental controls নামে আছে সেটা তো Tune এর দ্বিতীয় লাইনেই আমি বলেছি।

অনেক দরকারি জিনিষ দিলেন, ধন্যবাদ!!

    @Sohag: মতামত জানানোর জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

দরকারী চিজ। অসংখ্য ধন্যবাদ…..