ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

চার উপায়ে আপনি আপনার mac ডিভাইসে উইন্ডোজ চালাতে পারেন

আসসালামু আলাইকুম,

ADs by Techtunes ADs

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আলহামদুলিল্লাহ,আপনাদের দোয়ায় আমিও ভাল আছি। সব সময় মনে হয় একটু বেশিই কথা বলি আজ না হয় একটু কম ই বললাম। প্রতিটি টিউনের মত আজকেও একটা টপিক্স নিয়ে হাজির হয়েছি, যেটা অনেকের জন্যই জরুরি। বিশেষ করে যারা mac ডিভাইস ব্যবহার করেন,কিন্তু মনে সাধ জাগে যে, যদি উইন্ডোজ ব্যবহার করতে পারতাম। তো তাদের জন্যই আমার আজকের এই টিউন। তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে জেনে নেয়া যাক কিভাবে আপনি আপনার mac ডিভাইসে উইন্ডোজ চালাবেন

note: এর মাধ্যমে আপনি উইন্ডোজ -৮ ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি যদি এটি ব্যবহার করতে চান তাহলে অবশ্যই এর অরিজিনাল ডিস্ক মাইক্রোসফট বা এমাজন বা ই-বাই এর কাছ থেকে সংগ্রহ করতে হবে। ই লিগ্যাল কপি কাজ নাও করতে পারে।

 দুই পদ্ধতিতে আপনি কাজটি করতে পারেন:

১।Dual booting: ডুয়াল বুটিং হচ্ছে এমন একটি সিস্টেম যে আপনি যখন ম্যাক অন করবেন তখন ২টি অপারেটিং সিস্টেম দেখাবে। সেখানে আপনি যেকোনো একটা অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারবেন। যদি অন্য অপারেটিং সিস্টেমে যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ডিভাইসটি রিস্টার্ট দিতে হবে।

২। Virtualization: এর মাধ্যমে আপনার বর্তমান অপারেটিং সিস্টেমেই আপনি উইন্ডোজ ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এটা সঠিক পন্থা নয়। কারণ এইভাবে উইন্ডোজ ব্যবহার করতে গেলে এটা ভালভাবে কাজ নাও করতে পারে। কারণ উইন্ডোজ এর সকল রিসোর্স তো আর mac এর মধ্যে নেই তাই না।তবে এর সুবিধা হচ্ছে একই সময়ে আপনি ২টি অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারতেছেন।

1. Dual Boot Windows On Your Mac, Using Your Mac’s Hard Drive

সব চেয়ে সহজ পদ্ধতি, যেটায় সব চেয়ে ভাল পারফোমেন্স কিন্তু হার্ড ড্রাইভের কিছু জায়গা দখল করবে আর প্রতিবার উইন্ডোজ এ যেতে হলে কম্পিউটারকে অবশ্যই রিস্টার্ট দিতে হবে।

ম্যাক নিয়ে এসেছে boot camp নামের একটি ইউটিলিটি যা সহজেই dual boot উইন্ডোজ চালাতে সাহায্য করে। এর মাধ্যমে খুব সহজেই ম্যাক স্টার্ট আপ এর সময় boot os x অথবা উইন্ডোজ চয়েজ করা যায়। তবে এর মাধ্যমে উইন্ডোজ চালাতে হলে আপনার হার্ড ড্রাইভে মিনিমাম ৩০জিবি খালি থাকতে হবে। আর আরও বেশি নিতে পারেন যদি আপনি অনেক সফটওয়্যার বা গেইমস ইনস্টল দিতে চান।

ADs by Techtunes ADs

খুবই সহজেই আপনি ডুয়াল বুট করতে পারেন boot camp এর মাধ্যমে। প্রথমে Utilities ফুল্ডারে যান। সেখানে boot camp assistant ওপেন করুন। এরপর তার প্রসেস গুলো অনুসরণ করুন। উইন্ডোজ ড্রাইভার ইনস্টল শুরু হয়ে যাবে। আপনার হার্ড ডিস্কে একটা পার্টিশন তৈরি হবে আপনার mac রিস্টার্ট হওয়ার পূর্বেই প্রায় সম্পূর্ণ উইন্ডোজ ইনস্টল হয়ে যাবে।

২। Boot Windows On Your Mac From An External Hard Drive

এক্সটার্ণাল হার্ড ড্রাইভ থেকে উইন্ডোজ বুট করা অনেকটা কঠিন এবং পারফর্ম্যান্স বুট ক্যাম্প থেকে খারাপ। কিন্তু অধিকাংশ ভার্চুয়াল মেশিনের থেকে এটা ভাল। প্রতিবার কম্পিউটারকে রিস্টার্ট দিতে হয় উইন্ডোজ চালানোর জন্য। কিন্তু এটা ম্যাক এর হার্ড ড্রাইভে কোনো জায়গা দখল করে না। যদি আপনার ম্যাক এর হার্ড ড্রাইভে বেশি খালি জায়গা না থাকে তবে আপনি এই এক্সটার্নাল হার্ড ড্রাইভ থেকে সম্পুর্ণ উইন্ডোজ বুট করতে পারবেন। আপনি হার্ড ডিস্ক যেকোনো ম্যাক এ চালাতে চাইলে চালাতে পারবেন আর সকল ইনস্টল করা সফটওয়্যার ও আগের মতই থাকবে।

এটা সেটাপ দেয়ার জন্য একটা উইন্ডোজ সেটাপ দেয়া কম্পিউটার লাগবে,সেখানে WinToUSB install দিতে হবে, usb Drive লাগবে যেটা ৩২gb এর থেকে বেশি আর আমি সাজেস্ট করবো usb 3.0ব্যবহার করুন।

সেটাপ করবেন কিভাবে??

আপনার usb drive আপনার পিসিতে লাগান। এরপর Disk management utility ওপেন করুন। এরপর usb Drive এর উপর মাউসের ডান পাশের বাটন এ ক্লিক করুন(এখন কিন্তু আপনার usb তে কোনো ফাইল থাকলে সেগুলো ডিলিট হতে চলেছে)

এবার নিচের ছবির মত convert to GTP Disk এ ক্লিক করুন।

এরপর আপনার এই usb ড্রাইভটি ফরমেট হয়ে যাবে কিন্তু এটা আপনার ড্রাইভকে ম্যাক এ বুট করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি এমন অপশন দেখেন যে convert to MBR,তবে এখানে ক্লিক করার দরকার নেই। স্বাভাবিক ভাবে ঐ ড্রাইভের পার্টিশন ডিলিট করুন।

এখন আপনার এই খালি ড্রাইভটির ফাকা জায়গায় ডাবল ক্লিক করুন এবং FAT32 পার্টিশন তৈরি করুন। তবে  এর জন্য ১০০এম্বির এর বেশি জায়গা নেয়ার দরকার নেই। কারণ এটা শুধু বুট সেক্টরের কাজে ব্যবহৃত হবে। এরপর আরেকটি পার্টিশন তৈরি করুন যেটা হবে NTFS ফরমেটে হবে।  বাকি জায়গা সবটুকু এর জন্য রেখে দিতে হবে। কারণ এখানেই উইন্ডোজ হবে।

ADs by Techtunes ADs

এবার আপনার এক্সটার্ণাল ড্রাইভ টি wintousb এর জন্য রেডি। তো WintoUSB ওপেন করুন। এবার আপনার উইন্ডোজ ৮ এর ডিস্ক বা Iso ফাইল দরকার যেটা আপনার usb drive এ নিবেন।এরপর বাকি দায়িত্ব তা boot এবং সিস্টেম পার্টিশন নিবে।

এরপর Next এ ক্লিক করলেই Wintousb ইনস্টল হবে আপনার ইউএসবি ড্রাইভে। যখন এটা কমপ্লিট হয়ে যাবে তখন ডিস্ক কে পিসি থেকে বের করে ম্যাক এ প্রবেশ করুন। এরপর mac কে সাট ডাউন করে দেন। যদি এটা রানিং থাকে তবে এরপর ততক্ষন অন থাকবে যতক্ষণ হোল্ডিং অপশন কি থাকে।

আপনি আপনার ইউএসবি ড্রাইভকে bootable করার অপশন পাবেন। এরপর কন্টিনিউ চাপুন এবং উইন্ডোজ স্টার্ট হবে।যদিও এটা ইনস্টল হতে ২বা ৩বার রিস্টার্ট নিতে পারে উইন্ডোজ পুরোপুরি ইন্সটল করতে। এরপর উইন্ডোজ রান হবে। তবে ওয়াফাই বা অন্যান্য কিছু জিনিস কাজ করবে না। এর জন্য কিছু ড্রাইভার প্রয়োজন হবে। আপনার ম্যাক কে রিবুট দেন অপারেটিং সিস্টেম x এ এবং  the Boot Camp driver

ডাউনলোড করুন। এগুলো অন্য একটি ইউএসবিতে রাখুন যেন উইন্ডোজে এক্সেস করতে পারেন। উইন্ডোজে রিবুট করুন এবং ইনস্টলার রান করিয়ে দেন।

এখন আপনি একই কম্পিউটারে উইন্ডোজ এবংম্যাক এক সাথে চালাতে পারবেন।

৩। Virtualize Windows On Your Mac Using Parallels ($80)

ম্যাক ইউজারদের জন্য ভার্চুয়াল মেশিনে উইন্ডোজ বাবহার। ম্যাক এ উইন্ডোজ বাবহার করা খুবই সহজ কিন্তু একটু ব্যয়বহুল।ভার্চুয়ালি  উইন্ডোজ সফটওয়্যার রান করানোর জন্য আপনাকে কম্পিউটার রিস্টার্ট করার প্রয়োজন নেই। যাদের উইন্ডোজ সফটওয়্যারটি মাঝে মাঝে রান করানোর দরকার তাদের এটি কাজে লাগবে। ভার্চুয়াল মেশিনটি সঠিক ভাবে সেটিং করা একটু জটিল তবে এটার বাবহার খুবিই সহজ।

শুধু আপনাকে উইন্ডোজ ডিস্ক ইন্সটল এবং কিছু কনফিগার সেটিংস্‌ বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে। প্যারালাল এপ্স প্যারালাল  ভাবে অপারেটিং ইন্সটল খুবি দ্রুতগতি সম্পন্ন হয়। প্যারালাল ভাবে উইন্ডোজ ইন্সটল করলে কিছু ক্লিকে  আপনি ম্যাক এর কি বোর্ড উইন্ডোজ এ, ভার্চুয়াল মেশিনের জন্য বুট কাম্প পার্টিশন দিতে পারবেন।

ADs by Techtunes ADs

প্যারালাল সাধারণ ভাবে একটি VMWare Fusion যার মূল্য ($50)  তাকে ছাড়িয়ে গেছে বলে  বিবেচনা করা হয়। এটা  এর  দক্ষতা আর বৈশিষ্ট্যএর কারনে আজ বাণিজ্যিক ভাবে এর প্রতিদ্বন্দ্বী। কিন্তু ফিসন এখনো ভালো এবং সস্তা।

৪।Virtualize Windows On Your Mac Using VirtualBox (Free)

mac এ virtualbox install করে ভার্চুয়ালাইজ করতে পারবেন আপনার উইন্ডোজ। কিন্তু পারফরম্যান্স প্যারালালস এর সমান হবে না। কিন্তু এটাও একেবারে খারাপ না। আপনি যদি  ভার্চুয়াল মেশিন সেটাক দেয়ার জন্য একটু বেশি সময় ব্যয় করতে ইচ্ছুক হন তাহলে আমি বলব উইন্ডোজ ৮ ভার্চুয়াল বক্স এ ইন্সটল করুন।

এটা টেস্ট করা যে এতে প্রায় সব উইন্ডোজ সফটওয়্যার খুব ভালভাবে চালানো যায়।কিভাবে ভার্চুয়াল বক্স সেটাপ করবেন করবেন সেটা একটু গুগলে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। আমি শুধু পরিচয় করিয়ে দিলাম। বুঝেন ই তো একটা টিউনে কি আর সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করা সম্ভব???

ম্যাকের নির্দিষ্ট কিছু বৈশিষ্ট্যের জন্য হয়ত উইন্ডোজের সকল কিবোর্ড শর্ট কার্ট কাজ করবে না। তবে কপি পেস্ট সহ অন্যান্য কাজ খুব ভালভাবেই করতে পারবেন। জানি হয়ত আপনাদেরকে পুরোপুরিভাবে টিউনটি দিতে পারি নি। তবে আশা করি যেটুকু আপনাদের সাথে আলোচনা করেছি তার বাইরের টুকু আপনারা একটু চেষ্টা করলেই বের করে ফেলতে পারবেন।

তাই অবশ্যই ভাল লাগলে লাইক, টিউমেন্ট এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না। ইনশাআল্লাহ দেখা হবে অন্য কোনো টিউনে অন্য কোনো বিষয় নিয়ে। বেশি দেরি না। ইনশাআল্লাহ আগামী কালই। পরিশেষে, ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন,প্রযুক্তিকে ভালবাসুন আর প্রযুক্তির সাথেই থাকুন।

আল্লাহ হাফিজ।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি মোঃ আশিকুর রহমান সরল। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 106 টি টিউন ও 158 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 10 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি একজন প্রযুক্তি প্রেমী।কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং এ লেখাপড়া করছি।পৃথিবীকে নতুন কিছু করে দেখাতে চাই। My Website


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস