যা যা ডিসেবল করা দরকার উইন্ডোজ ১০ এ কারণ সহ [পর্ব-০২]

টিউন বিভাগ উইন্ডোস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

সুপ্রিয় টেকটিউনস,

পরিবারের সবাইকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের টিউন এর দ্বিতীয়পর্ব

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০ এ কি কি Disable করেবেন আর কেনই বা Disable করবেন।

দ্বিতীয় পর্বে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০ এ Settings গুলা Disable করার ক্ষেত্রে যে সকল স্টেপ আছে সে সম্পর্কে সচিত্র, বিস্তারিত আলোকপাত করা হলো।

তাহলে চলুন Disable করে ফেলি তাড়াতাড়ি।

যদি না জেনে থাকেন তাহলে জেনে নিন কি কি Disable করবেন আর কেন Disable করবেন? জানতে এখানে ক্লিক করুন।
1. Disable ওয়াই ফাই সেন্স
প্রথমে যাব Settings, সেখান থেকে Network & Internet সিলেক্ট করলে পাবো Wi-Fi,

আর তারপর Wi-Fi পেজটির ডানদিকে Manage Wi-Fi settings সেখানে যা যা অন থাকবে তা Disable করেদিন।

ব্যাস হয়ে গেল ওয়াই ফাই সেন্স Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

 

 

2. Disable ব্যান্ডউইথ শেয়ারিং ফর আপডেটস

এবারো যাব Settings এ  সেখান থেকে Update & Security সিলেক্ট করলে পাবো Windows Update,

আর তারপর Windows Update পেজটির ডানদিকে Advanced options, সেখানে সিলেক্ট করলে পাব Choose how updates are delivered

সেখানে সিলেক্ট করলে পাব Updates from more than one place সেখানে যা অন থাকবে তা Disable করেদিন।

ব্যাস হয়ে গেল, ব্যান্ডউইথ শেয়ারিং ফর আপডেটস Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

3. Disable অটোমেটিক্যালি এপলাই আপডেট

এবারো যাব Settings এ  সেখান থেকে Update & Security সিলেক্ট করলে পাবো Windows Update,

আর তারপর Windows Update পেজটির ডানদিকে Advanced options,

খালি পরবর্তন করব " Automatic Recommended" থেকে "Notify to schedule restart." তে

ব্যাস হয়ে গেল, Automatically-Applied Updates Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

4. Disable গেটিং টু নো ইউ

আবারো এবারো যাব Settings এ  সেখান থেকে "Privacy" সিলেক্ট করলে পাবো "Speech, inking & typing",

আর তারপর "Speech, inking & typing" পেজটির ডানদিকে "Stop getting to know me" সিলেক্ট করব, off করব।

ব্যাস হয়ে গেল, গেটিং টু নো ইউ Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

5. Disable টার্গেটেড অ্যাড

এবারো আবার যাব Settings এ  সেখান থেকে "Privacy" সিলেক্ট করলে পাবো "General" "General" পেজটির ডানদিকে "Let apps use my advertising ID for experiences across apps." সুইচ অফ ফানসান

ব্যাস হয়ে গেল টার্গেটেড অ্যাড Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

6. Disable অ্যাপ্লিকেশন অ্যাক্সেস টু ইওর লোকেসন, মাইক্রোফোন, এবং ক্যামেরা

এবারো আবার যাব Settings এ  সেখান থেকে "Privacy" সিলেক্ট করলে পাবো "Location"

পেজটির ডানদিকে " Choose apps the can use your location" বন্ধ করুন সকল অপসন গুলি।

একই ভাবে "Privacy" পেজটির  Camera & Microphone এর সকল অপসন গুলি বন্ধ করুন।

ব্যাস হয়ে গেল অ্যাপ্লিকেশন অ্যাক্সেস টু ইওর লোকেসন, মাইক্রোফোন, এবং ক্যামেরা Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

7. Disable Background Apps

আবার যাব Settings এ  সেখান থেকে "Privacy" সিলেক্ট করলে পাবো "Background apps" শেষ অপসনটি

"Background apps" পেজটির ডানদিকে "let apps run in background" বন্ধ করুন সকল অপসন গুলি বা যেটা দরকার নয় সেটা।

ব্যাস হয়ে গেল Background Apps Disable

যে ভাবে করলাম দেখালাম নিচের ছবি গুলাতে

-

এই টিউন টি করতে আমাকে কেউ রিকোয়েস্ট করেনি তবু আমার মনে হলো, যে প্রতেকের একটা ব্যক্তিগত বলে জিনিস থাকে আর সেটা কেউই কারোর কাছে প্রকাশ করতে চাইবেনা, সে মানুষ হোক বা মাইক্রোসফট এর মতো একটি কোম্পানি হোক না কেন। এটা জানানো আমার কর্তব্য বলে মনে হল তাই এই টিউনটি করলাম।

অবশ্যই সবাই টিউমেন্ট করবেন ভালো না লাগলেও। ব্যক্তিগত মতামত দিবেন [সেটাতো আপনার ব্যক্তিগত ব্যপার দিতেই পারেন] ভালো লাগবে আর আমার এই টিউন যদি কারোর খারাপ লেগে থাকে তবে আমি একান্তই দুঃখিত।

আমার কাউকে দুখিত করার কোনো প্রকার উদ্দেশা নেই। ভালো থাকবেন, ভালো রাখবেন, আর প্রবেলম হলে আমি থুড়ি টেকটিউনস তো আছে।

বি:দ্র: আপনার যদি মনে হয়, আপনি নাও DISABLE করতে পারেন Settings গুলা কারণ সেটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার আর আমি কারো ব্যক্তিগত ব্যাপার এ হস্তক্ষেপ করতে চাই না।

Level 2

আমি অভিষেক হাজরা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 31 টি টিউন ও 438 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 15 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

আমি অভিষেক , মাইক্রোসফট টেক প্রসেস এ কর্মরত ; ভালো লাগে টেকটিউন কে ভালোবাসি বললে ভালো হয় , আর তাই বার বার ফিরে আসি। নতুন কে জানার টানে। নতুন কে জানানোর টানে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

উন্ডোজ ১০ ব্যবহারকারীদের জন্য খুবই কাজের টিউন। আমি উইন্ডোজ ইন্সটলের সময়ই এডভান্স মুডে এর বেশ কয়েকটি ডিসেবল করেছিলাম। এখন আপনার টিউন দেখে আবার রিভিউ করলাম।

তবে এই ফিচারগুলো ডিসেবল করলে কিন্তু উইন্ডোজ ১০-এর বেশিরভাগ নতুন ফিচারই ডিসেবল হয়ে যায়। তবে সিকিউরিরিটির কাছে কোন আপস নয়। মাইক্রোসফটের এর প্রাইভেসি পলিসিতে দেখলাম তারা ইমেইলের সাবজেক্ট এবং বডিও রিড করতে পারে। আসলে প্রযুক্তি বিশ্বে আমরা কখনোই সেফ না। সবসময়ই এইসব টেকজায়ান্টরা আমাদের উপর নজরদারি করছে।

    ধন্যবাদ কমেন্টের জন্য
    অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনার মতামত দেওযার জন্য আবদাল মুনতাকীম ভাই ।

    এই সকল অপসন ডিসেবল করলে উইন্ডোজ ১০ এর আসল মজা নষ্ট হয়ে যাবে, কিন্তু সুরক্ষার সাথে আপোস , সেটা আমি ও পারলাম না ।
    মাইক্রোসফট বা গুগল বা ফেইসবুক সবার কাছে আমদের অনেক কিছু ডেটা সেভ থাকে , কিন্তু যদি সেই ডেটা যদি থার্ড পার্টি এপ্লিকেশন ব্যবহার করে , বা পেয়ে যায় তখন কি করবেন মশাই।
    উইন্ডোস ১০ কথাই বলি ওয়াই ফাই সেন্স এই সিস্টেম এর মাধ্যমে আপনার ফেইসবুক এর বন্ধুরা আপনার পাসওয়ার্ড পেয়ে যাবে খুব সহজে, (কারণ আপনি তাদের হোম নেটওয়ার্ক এ যুক্ত করবেন ) তারা চাইলে আপনার ওয়াই ফাই ব্যবহার করে আপনার পিসি তে প্রবেশ করতে পারে।
    আসলে আমি মনে করি “precaution is better than cure ”
    আর আমি নিজে মাইক্রোসফট কোম্পানি এর সাথে যুক্ত তাই মনে হলো বলা উচিত তাই বললাম।
    ভালো থাকবেন আর কোনো হেল্প লাগলে বলবেন।

nice bro thnx

যাহোক সর্বস্তরের পাঠকদের কথাটা মনে রেখে ২ভাগে টিউন সাজানোর ধরণটি ভালো লাগল!!

    ধন্যবাদ কমেন্টের জন্য
    অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনার মতামত দেওযার জন্য,
    হ্যা ঠিক বলেছেন , এক টিউন এ অনেক লেখা থাকলে পড়তে পড়তে ভালো লাগেনা ,
    তাই দুই টুকরো করে দিলাম টিউনটা কে। এতে আগ্রহ থাকবে পাঠকদের।

Level 0

অনেক ভালো একটা টিউন হইছে যদিও এক এক জনের পছন্দ এক এক রকম …।

    ধন্যবাদ কমেন্টের জন্য
    অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনার মতামত দেওযার জন্য.
    হ্যা ঠিক বলেছেন tsujon ভাই
    এক এক জনের পছন্দ এক এক রকম না হয়ে সবার পছন্দ যদি একহতো
    তাহলে , এই বিবেধ , এই মারামারি , এই হিংসা কিছু থাকতো না।
    সবাই এক সাথে এক মতে থাকতাম।
    ভালো হতো। কিন্তু কিছু করার নেই।

    ভালো থাকবেন , ভালো রাখবেন।
    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য।

Level 0

অনেক ভালো একটা টিউন হইছে যদিও এক এক জনের পছন্দ এক এক রকম ।।

ধন্যবাদ, আবারো অসাধারন। তবে কি কারনে বন্ধ করবো সেটা পেলাম না ।

ধন্যবাদ ভাই অসাধারন শেয়ার Disable Background Apps বন্ধ না করলে কি কোন সমস্যা আছে ? ধন্যবাদ ?

    ধন্যবাদ আলম সাইদ ভাই ,
    আগের মতো পাশে থাকার জন্য ও পাশে রাখার জন্য।

    অনেক “ইউনিভার্সাল ” উইন্ডোজ অ্যাপ্লিকেশন আপনার কম্পিউটার চালু হলে পাশাপাশি শুরু হয়,
    এবং তা আপনার ল্যাপটপ এর ব্যাটারি উপর বড় প্রভাব ফেলে,
    এবং তা আপনার কম্পিউটার এর রেম উপর প্রভাব ফেলে তাই
    Disable “Unwanted Background Apps”
    আপনার পিসির কনফিগারেসন হাই থাকলে Disable Background Apps নাও করতে পারেন।

    আশা করি আপনার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলাম,
    আর কোনো প্রশ্ন থকলে বলবেন কিন্তু।

    ধন্যবাদ টিউনমেন্টের জন্য।

    টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবে।

    আর কোনো প্রবলেম হলে বলতে ভুলবেনা যেন।

ধন্যবাদ ভাই অসাধারন শেয়ার করার জন্য

    আই এইচ কে শাওন ভাই ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য,

    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবেন।

ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য!!!

    প্রযুক্তি পাগল মহাশয়, ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য,ভালো থাকবেন।

    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য।

শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ………

    শাহজাহান আলি ভাই ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য,

    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবেন।

thanks . অসাধারন ।প্রিয়তে নিলাম । বাট Windows Voice Recorder কে microphone ইউস করতে না দেবার কারন বুঝলাম না ।

    ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য নীলোৎপল বেদী ভাই।
    কেমন আছো ভালো তো ?
    যদি CORTANA USE কারো তাহলে বুঝতে পারবে ,
    যে Cortana তোমার রেকর্ডিং সেভ করে রাখছে ,
    আর সেই রেকর্ডিং শেয়ার হবে XBOX এ গেম খেললে বন্ধুদের সাথে।
    কারণ XBOX তোমার রেকর্ডিং ব্যবহার করতে পারে ,
    আর গেম খেললে এক নেটওয়ার্ক এ যুক্ত হয় গেম খেলতে হবে ,
    তাই তোমার বন্ধু বা কলিগ খুব সহজে তোমার ডেটা পেতে পারে।
    তাই সাবধান আগে থেকে হওয়া ভালো,
    আমি এটাও জানি যে এই সকল অপসন ডিসেবল করলে
    উইন্ডোজ ১০ এর আসল মজা নষ্ট হয়ে যাবে, কিন্তু সুরক্ষার সাথে আপোস , সেটা আমি পারলাম না ।
    আশা করি তোমার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলাম ,
    আর কোনো প্রশ্ন থকলে বোলো কিন্তু।

    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবে।

    আর কোনো প্রবলেম হলে বলতে ভুলবেনা যেন।

thanks. অসাধারণ দুইটা টিউন করলেন ভাইয়া।

    ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য তানজীর হোসেন ,

    ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবেন।

    আর কোনো প্রবলেম হলে বলতে ভুলবেন না যেন।

অনেক সুন্দর টিউন,এটাই হয়তো খুঁজছিলাম।

    ধন্যবাদ টিউনমেন্টর জন্য, ধন্যবাদ টেকটিউনের সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকবেন।

থ্যাংকয়্যু ভাই ! আপনার টিউনটি আমার দারুন কাজে দিয়েছে। না যেভাবে আমার ইন্টারনেট ডাটা শেষ হচ্ছিল ! দুদিনেই ২জিবি শেষ :O

আপনার টিউন গুলো সবসময় খুব তথ্য বহুল হয়।

Wi-Fi Sense তো ব্রডব্যান্ড পিসিতে এমনিতেই অফ থাকে। আমার তো এই অপশানটা নাই! আমার পিসিতে কোন ওয়াফাই এডাপ্টার/ডাঙ্গেল নাই। কিন্তু আমি রাউটার ব্যবহার করি।

কি করলে উইন্ডোজ ১০ এর গতি/স্পিড বৃদ্ধি পাবে?