ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

ইউটিউব থেকে আয় করা কি হালাল?

যেহেতু ইউটিউবে প্রাপ্তবয়স্কদের বিজ্ঞাপণ সহ নানারকম বিজ্ঞাপণ দেখায় সেহেতু অনেকেই মনে করেন ইউটিউব থেকে আয় করা হারাম। এখানে আমি আমার ব্যক্তিগত মত প্রকাশ করবো, আপনাদের ভিন্নমত থাকতেই পারে। বাংলাদেশী ইউটিউবারেরা অনেকেই আছেন যারা ধার্মিক এবং এই বিষয়টি নিয়ে সংশয়ে ভুগছেন। ভালো মাণের ভিডিও তৈরি করতে পারলে এবং সেগুলোতে ভালো ভিউ পেলে এডসেন্স এর বিজ্ঞাপণ দেখিয়ে ইউটিউব থেকে টাকা পাওয়া যায়।

ADs by Techtunes ADs

মনিটাইজেশন চালু করার শর্ত

সবাই জানেন, তারপরেও আরেকবার বলছি। কমপক্ষে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার, বছরে ৪০০০ ঘন্টা ভিউ থাকলে এবং কোন পলিসি অমান্য না করে থাকলে মনিটাইজেশন চালু তথা এডসেন্স এর বিজ্ঞাপণ আপনার ভিডিওগুলোতে দেখাতে পারবেন। এটি থেকে CPC এবং RPM অনুযায়ী কিছু টাকা পাবেন। বাংলাদেশীরা সাধারণত ১০০০০ ভিউতে ১ ডলার করে পান। ভিউ এর উপর আয় নির্ভর করে না, নির্ভর করে ক্লিক এবং ভিউয়ারের মাণের উপর।

এডসেন্স কিভাবে বিজ্ঞাপণ দেখায়?

এডসেন্স বিজ্ঞাপণ দেখানোর জন্য বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে পাওয়া টাকা থেকে শতকরা ৫০ ভাগের কাছাকাছি টাকা নিজে নিয়ে নেয়, বাকিটা আপনাদের দেয়। এরপরেও এডসেন্স সবার জন্য লাভজনক হয় কারণ, যার যে বিষয়ে আগ্রহ আছে তাকে সেই বিষয়ের বিজ্ঞাপণ দেখায়। আমরা ইউটিউবে, ব্রাউজারে নানা জায়গায় যা খুঁজি যা দেখি সেগুলো গুগলের নখদর্পণে। আমার যদি নতুন ফোনের প্রতি আগ্রহ থাকে আমাকে ফোনের বিজ্ঞাপণ দেখাবে। পর্ণে আগ্রহ থাকলে ঐ ধরনের বিজ্ঞাপণ দেখাবে।

আমি কেন ইউটিউব থেকে আয় করাকে হালাল মনে করি?

মনে করুন একজন ব্যক্তি শফিক সাহেব গণিতের শিক্ষক, তিনি ছেলে মেয়েদের গণিতের শিক্ষা দেন, নিশ্চয়ই হালাল কাজ। সেখানে পল্টু প্রতিদিন যায় গণিত শিখতে, তাঁর পছন্দের শিক্ষক শফিক সাহেব নন, সালাম সাহেব। মর্জিনার ভালো লাগে শফিক সাহেবের পড়ানো, তাই সে শফিক সাহেবের কাছে গণিত পড়ে। পল্টুর উদ্দেশ্য মর্জিনাকে পটানো, তাঁর সাথে প্রেম করা। এই কারণেই সে শফিক সাহেবের কাছে পড়ে। এদিকে পল্টুর বাবা মাস শেষে অঙ্কের স্যারের টাকা পল্টুকে দিয়ে দিয়েছে। পল্টু কিছু টাকা দিয়ে বন্ধুদের সাথে চা, বিড়ি, নাস্তা খেয়েছে এবং বাকি টাকা দিয়ে মর্জিনার জন্য গিফট কিনেছে- স্যারের টাকা দেয় নাই।

এখন বলুন, কে হালাল কাজ করেছে, কে হারাম কাজ করেছে- আমি মনে করি পল্টু ছাড়া সবাই হালাল কাজ করেছে, পল্টু হারাম কাজ করেছে।

ইউটিউবারেরা যা করেন, দর্শকেরা যা করেন

আপনার ভিডিওতে কন্টেন্ট যদি ভালো হয়, আর এডসেন্স এর ড্যাশবোর্ড থেকে হারাম বিজ্ঞাপণা ব্লক করে দেন তাহলে আপনার আয় হালাল। কিন্তু, আপনার কোন দর্শকের আগ্রহ যদি থাকে হুজুরের ওয়াজ শোনা আর পর্ণ দেখা- ভাই, গুগল তাকে হুজুরের ওয়াজে পর্ণের বিজ্ঞাপণ দেখাবে। আপনিই বলেন অপরাধটা কার? যিনি ইউটিউবার তিনিও জানেন বিভিন্নরকম বিজ্ঞাপণ দেখাতে পারে, তাঁর কাছেও ব্লক করার অপশন আছে।

আশা করছি এই বিষয়টি নিয়ে আপনাদের কে কিছুটা হলেও ধারণা দিতে পেরেছি। কারো ভিন্নমত থাকলে থাকতেই পারে।

 

তথ্যসূত্রঃ ইউটিউব সম্পর্কে তথ্য

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি লেখক ডট মি। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 7 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস